শিরোনাম ::
উখিয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রার্থীতা ঘোষণা করেছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু পেকুয়ায় বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ করে কিশোরীর ভিডিও ধারণ, যুবক আটক পেকুয়ায় হাসপাতালে নবজাতক সন্তান রেখে পালিয়ে গেলেন মা বাংলাদেশে ঢুকল মিয়ানমারের আরও ৪৬ বিজিপি সদস্য মহেশখালীতে র‍্যাব ও পুলিশের অভিযান, ৭ টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ৪ পেকুয়ার মানুষের সেবা করতেই ছুটে এসেছি- ড. সজীব বাইক দুর্ঘটনায় রামুর পোল্ট্রি ব্যবসায়ী নিহত কক্সবাজারে হোটেলের সুইমিংপুলের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু চকরিয়ায় বাড়ি থেকে ঢেকে নিয়ে মেম্বার প্রার্থীকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা পেকুয়ায় রেঞ্জ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পাহাড়ের জব্দকৃত বালু বিক্রির অভিযোগ
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

৫ বছর পর এই প্রথম কাশ্মীরে শোভাযাত্রা-সমাবেশ মোদির

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ৭ মার্চ, ২০২৪
৫ বছর পর এই প্রথম কাশ্মীরে শোভাযাত্রা-সমাবেশ মোদির


নয়াদিল্লি, ০৭ মার্চ – জম্মু-কাশ্মিরের স্বায়ত্বশাসন বাতিলের ৫ বছর পর এই প্রথম এ রাজ্যের রাজধানী শ্রীনগর যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ শনিবার শ্রীনগরে শোভাযাত্রা ও সমাবেশ করবে বিজেপি, আর এ কর্মসূচির প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন মোদি।

১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসন থেকে স্বাধীনতালাভের পর যে সংবিধান গ্রহণ করেছিল ভারত, সেখানে ‘৩৭০ নম্বর ধারা’ নামের একটি ধারা যুক্ত ছিল। সেই ধারা অনুযায়ী, জম্মু-কাশ্মির-লাদাখের নিজেদের সংবিধান এবং আলাদা পতাকার অধিকার দেওয়া হয়েছিল। সেই সঙ্গে বলা হয়েছিল, কেবলমাত্র এই রাজ্যের বাসিন্দা বা বংশোদ্ভূতরাই জম্মু-কাশ্মির-লাদাখে জমি কিনতে পারবেন।

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট এক পার্লামেন্ট ভোটের ৩৭০ নম্বর ধারা বাতিল করে জম্মু-কাশ্মির এবং লাদাখকে পৃথক করে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে রূপান্তর করা হয়। সংবিধানের এই পরিবর্তনের জেরে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছিল মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ কাশ্মিরে। এ কারণে দীর্ঘদিন কার্যত ‘প্রশাসনিক লকডাউনে’ ছিল জম্মু-কাশ্মির।

৩৭০ নম্বর ধারা বাতিলের পর অমিত শাহ-জেপি নাড্ডাসহ বিজেপির অন্যান্য জ্যেষ্ঠ দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে কাশ্মির সফরে গেলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যাননি। গত পাঁচ বছরে এই প্রথম দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে কাশ্মির যাচ্ছেন তিনি।

আগামী এপ্রিল থেকে ভারতের পার্লামেন্ট লোকসভার নির্বাচন শুরু হতে যাচ্ছে। ভারতের রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, আসন্ন নির্বাচনে জম্মু-কাশ্মিরে নিজেদের ঘাঁটি শক্তিশালী করতে চায় বিজেপি। মোদির সফরের প্রধান কারণ এটিই।

প্রসঙ্গত, এর আগের পার্লামেন্ট নির্বাচনগুলোতে জম্মুতে কয়েকটি আসনে জয়ী হলেও কাশ্মিরে এ পর্যন্ত কোনো আসনে জয়ী হতে পারেনি বিজেপি। তাই এবার কাশ্মিরে বিশেষ মনযোগ দিচ্ছে দলটির হাইকমান্ড।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষ্যে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জারি করা হয়েছে। শ্রীনগরজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীর হাজার হাজার সদস্যকে। রাজধানীর যেখানে মোদির সমাবেশ হবে, সেই বকশি স্টেডিয়াম কার্যত ‘নিরাপত্তা দূর্গে’ পরিণত হয়েছে হয়েছে বলে এক প্রতিবেদেনে জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

বিজেপির জম্মু-কাশ্মির নেতারা জানিয়েছেন, শোভাযাত্রা-সমাবেশে দুই লাখ মানুষ উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করছেন তারা। রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে লোকজনকে নিয়ে আসতে ১ হাজার ১০০টিরও বেশি বাস বরাদ্দ করা হয়েছে।

এছাড়া রাজ্যের বিভিন্ন জেলা শহরের বিগ স্ক্রিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বকশি স্টেডিয়ামে নরেন্দ্র মোদির ভাষণ শুরু হলে তা সরাসরি এসব স্ক্রিনের মাধ্যমে রাজ্যজুড়ে সম্প্রচারিত হবে।

বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক তরুণ চাগ বলেন, ‘গত পাঁচ বছরে জম্মুকাশ্মিরে উন্নয়ন হয়েছে, শিল্প কারখানা গড়ে উঠছে। জনগণের কর্মসংস্থান হচ্ছে। কাশ্মির থেকে দূর্নীতি অনেকাংশে দূর হয়েছে। ৩৭০ নম্বর ধারা বাতিলের পরই এসব অর্জন সম্ভব হয়েছে।’

‘এসব পরিবর্তন জম্মু-কাশ্মিরের জনগণ আন্তরিকভাবে গ্রহণ করেছেন এবং আমরা আশা করছি, আজকের সমাবেশে জনগণের সেই আন্তরিকতার প্রতিফলন ঘটবে।’

সূত্র: ঢাকা পোস্ট
আইএ/ ০৭ মার্চ ২০২৪





আরো খবর: