বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৬:১২ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

১৩ দিন পর আরও তিনজন জীবিত উদ্ধার

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
১৩ দিন পর আরও তিনজন জীবিত উদ্ধার

আঙ্কারা, ১৮ ফেব্রুয়ারি – গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্ক ও সিরিয়ার আঘাত হানে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প। এতে এ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৬ হাজারে। এখনও চলছে উদ্ধারকাজ।

তবে এতোদিন পরও ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে এক শিশু, এক পুরুষ ও এক নারীকে উদ্ধার করা হয়েছে। তুরস্কের টেলিভিশন এনটিভির বরাতে এ খবর দিয়েছে আলজাজিরা।

কাতারভিত্তিক এই সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এতোদিন হাতায়ে প্রদেশের কানটাকি এপার্টমেন্টের ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে ছিলেন তারা। ইতোমধ্যে চিকিৎসার জন্য তাদেরকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

ভূমিকম্পের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশটির শত শত ভবন। ঘরছাড়া হয়েছেন লাখো মানুষ। ভিটে-মাটি হারিয়ে বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় নিয়েছে ক্ষতিগ্রস্তরা।

আলজাজিরার এক প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আঙ্কারার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের গেস্ট হাউস, ছাত্রাবাস, স্পোর্টস হলসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও বিদ্যালয়ের ছাত্রাবাসে প্রায় দুই লাখ মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন।

এদিকে সিরিয়ায় ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক স্কুল-ভবন ভেঙে যাওয়ার ফলে কবে নাগাদ শিক্ষা কার্যক্রম ফের চালু হবে তাও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

প্রসঙ্গত, ভূমিকম্পের তিনদিন পর থেকে সিরিয়া-তুরস্কের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার আশপাশে খাদ্য সহায়তা দিয়ে আসছে জাতিসংঘের ১৭৮টি সহায়তাকারী ট্রাক।

এদিকে প্রায় ১ হাজার ৬০০ শিশুর তত্ত্বাবধান করছে তুরস্ক সরকার। ভূমিকম্পের কারণে যেসব শিশুর মা-বাবার পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি।

সূত্র: যুগান্তর


আরো খবর: