শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৪:২০ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

স্থানীয় সাংসদের সু-দৃষ্টিতে হলদিয়া পালং ইউনিয়ন, উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে পুরো এলাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আপডেট: শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২৪

কক্সবাজারের উখিয়ায় ২৭ কোট ৯৭ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে ১২ টি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু ও উদ্বোধন করা হয়েছে। তৎমধ্যে শুধুমাত্র হলদিয়া পালং ইউনিয়নে রয়েছে ৯ কোটি ৯৯ লাখ ২৬ হাজার ৭১৫ টাকা ব্যয়ের ৬ টি প্রকল্প। উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে ৭ টি সড়কের কার্পেটিং কাজ ও ৫ টি খালের উপর ব্রিজ নির্মাণ।

২৪ জানুয়ারী প্রধান অতিথি হিসেবে উন্নয়ন কাজের আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন উখিয়া-টেকনাফ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য শাহিন আকতার চৌধুরী।

এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, উখিয়া-টেকনাফ আসনের সাবেক সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি।

উখিয়ার হলদিয়া পালং, রত্না পালং, পালংখালী ও রাজা পালং ইউনিয়নে পৃথক উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন উখিয়া উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নেছা বেবী, উপজেলা প্রকৌশলী রোকনুজ্জামান খান, উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নরুল হুদা, কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান অধ্যাপক হুমায়ুন কবির চৌধুরী, হলদিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম, হলদিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমিনুল হক আমিন, উখিয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাঈদ মুহাম্মদ আনোয়ার।

উপজেলা প্রকৌশলী রোকনুজ্জামান খান জানান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ( এলজিইডি) বাস্তবায়নাধীন হলদিয়া পালং ইউনিয়নের ৬টি উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয় বরাদ্দ ধরা হয়েছে ৯ কোটি ৯৯ লাখ ২৬ হাজার ৭১৫ টাকা। প্রকল্প সমূহ হচ্ছে ৯৯ লাখ ৯৭ হাজার ৬৩৩ টাকা ব্যয়ে রুমখাঁ-রুমখাঁ প্রাইমারী স্কুল রোড়, ২ কোটি ৫৮ লাখ ৯ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত ধুরুমখালী-মহাজন পাড়া খালের ব্রিজ, ৯৪ লাখ ২৬ হাজার ১৮৪ টাকা ব্যয়ে রুমখাঁ নাপিতপাড়া সড়ক, ১ কোটি ৬৭ লাখ ২১ হাজার ৩৮৭ টাকা ব্যয়ে মরিচ্যা রোহিঙ্গা ক্যাম্প বিট অফিস সড়ক, ৮৯ লাখ ৩৭ হাজার ৫১১ টাকা ব্যয়ে পাগলির বিল জিপিএস-রাবার ড্যাম রোড় এবং ২ কোটি ৯০ লাখ ৩৫ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত মরিচ্যা জিসি পাগলীরবিল নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা রোড়ের কার্পেটিং।

উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য শাহিন আক্তার ও সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির আন্তরিক ও একক প্রচেস্টায় এই প্রকল্প গুলো বাস্তবায়িত হচ্ছে। হলদিয়া পালং ইউনিয়নে কোন উন্নয়ন হয়নি বলে স্থানীয় চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী সরকার ও সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালালেও বিগত ৫ বছর উখিয়ার সিংহভাগ উন্নয়ন হয়েছে হলদিয়া পালং ইউনিয়নেই। সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি ও বর্তমান সংসদ সদস্য শাহিন আক্তার সব সময় হলদিয়া পালং ইউনিয়নকে অগ্রধিকার দিয়েছেন এবং বর্তমানেও দিচ্ছে।

উখিয়া উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুনেচ্ছা বেবি জানান, উখিয়ার ৪ টি ইউনিয়নে ২৮ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ শুরু ও সম্পন্ন হয়েছে। তৎ মধ্যে শুধু মাত্র হলদিয়া পালং ইউনিয়নেই দশ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রমানিত সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি আন্তরিক প্রচেষ্টায় হলদিয়া পালং এর গ্রামীণ অর্থনীতি অগ্রগতিসহ সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার অভূতপূর্ব উন্নয়নের বিপ্লব ঘটেছে, সেটাই সঠিক। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের দাবিটা অপপ্রচার ছিলো ও মিথ্যায় ভরপুর।


আরো খবর: