শিরোনাম :
উখিয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে সোয়া ১ লাখ ইয়াবাসহ মা-ছেলে আটক সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে জন্মদিন উদযাপন ‘স্কাস’ চেয়ারম্যানের ছেলে ইসফারের নারী কেলেঙ্কারির বিরুদ্ধে নিউজ করায় এবার মহেশখালীর ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা সাংবাদিক সংসদ কক্সবাজার’র আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল সম্পন্ন টেকনাফে ১০ হাজার ইয়াবাসহ মোটরসাইকেল জব্দ টেকনাফে প্রধানমন্ত্রী’র উপহার পেল পৌরসভার ৩৪৮১ পরিবার পেকুয়ায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেল ১৮০ পরিবার ৩ শতাধিক পরিবারের তীব্র পানি সংকট দূর করলেন টেকনাফের ইউপি সদস্য এনাম ১২নং ওয়ার্ডের দলীয় নেতাকর্মী ও কর্মহীন মানুষের মাঝে শাহেদ আলীর উপহার সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত
সোমবার, ১০ মে ২০২১, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

সেই কামরাজের পাশে পরিণীতি

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: March 14, 2021 6:47 am | সম্পাদনা: March 14, 2021 8:24 am

সেই কামরাজের পাশে পরিণীতি

[ad_1]

বিনোদন ডেস্ক: ভারতের অনলাইন ভিত্তিক খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান জোমাটো’র ডেলিভারি বয় কামরাজ ও তরুণী হিতেশা চন্দ্রানীর ঘটনায় এবার মুখ খুললেন পরিণীতি চোপড়া।


বলিউড অভিনেত্রী পরিণীতি টুইট করে এ ঘটনার সত্যতা উদঘাটনের আবেদন জানিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি জোমাটো ডেলিভারি বয় কোনও অপরাধ করেননি। আমি কীভাবে সাহায্য করতে পারি দয়া করে জানান।’


ঘটনার সত্যতা জানতে উত্তাল ভারতীয় সামাজিক মাধ্যম। কে দোষী আর কে নয় তা এখনও জানা যায়নি। কিন্তু সামাজিক মাধ্যমের একটি বড় অংশ কামরাজের পাশে রয়েছে।


কামরাজের কথা প্রকাশ্যে আসা মাত্রই নেট নাগরিকদের একাংশ তার পাশে দাঁড়িয়েছে। তিনি জোর গলায় জানিয়েছেন সত্যি সামনে আসবেই।


এ বিষয়ে স্পষ্ট করে কামরাজ বলেন, ঘটনার পর আমি এতো জলঘোলা করতে চাইনি। যা ঘটেছে তা ভুলে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তার (হিতেশা) সোশ্যাল মিডিয়ায় করা ভিডিও আমার রোজগার কেড়ে নিয়েছে আমি প্রয়োজনে আইনের পথে হাঁটব। কারণ, আমি দোষী নই। হতে পারে আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও করে প্রচার করিনি বা আগে কোথাও অভিযোগ জানাইনি। আমি সত্যের পথে হাঁটতে চাই।


প্রসঙ্গত, হিতেশা চন্দ্রানী নামের ওই তরুণী খাবার অর্ডার করেছিলেন জোমাটো’তে। যা যথাস্থানে পৌঁছতে এক ঘণ্টা বেশি সময় দেরি হয়ে যায়। এই দীর্ঘ সময়ে চন্দ্রানী জোমাটো’র ঊর্ধ্বতনের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি দাবি করেন, তার খাবার ফ্রি করে দেওয়া হোক অথবা ফিরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করা হোক।



হিতেশা চন্দ্রানী ও কামরাজ


কামরাজ খাবার নিয়ে পৌঁছুতেই অসভ্যের মতো ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ চন্দ্রানীর। তাকে দাঁড়াতে বলেন তিনি। সেই সময় ফ্রিতে বা খাবার ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব কিনা সে বিষয়ে কথা বলছিলেন। কিন্তু ডেলিভারি বয় দাঁড়াতে রাজি হয় না এবং খাবার ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চান না। এরপরই শুরু হয় তর্ক। চন্দ্রানীর অভিযোগ এরপরই কামরাজ ঘুসি মেরে নাক ফাটিয়ে দেন। গল গল করে রক্ত বেরিয়ে আসে।


কামরাজ পুলিশকে জানিয়েছেন, ‘ওই তরুণী আমায় খাবার ফেরত নিয়ে যেতে বলেন, অন্যদিকে কোম্পানি আমাকে ফোন করে বলে গ্রাহককে বোঝাতে। কিন্তু, তিনি উত্তেজিত হয়ে নোংরা কথা বলেন। আমাকে নিচু দেখান। ‘দাস’ বলে কটাক্ষ করেন। চিৎকার করতে শুরু করেন। এরপর চটি ছুড়ে মারেন। সেই চটির থেকে বাঁচতে হাত এগিয়ে দিই। তখন উনার নিজের হাতের আংটি নাকে লেগে যায়’।


সান নিউজ/এসএস

Copyright © Sunnews24x7

[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::