বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৩:২০ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলায় দুই রুশ জাহাজ

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: সোমবার, ৩০ জানুয়ারি, ২০২৩

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ইলেকট্রিক্যাল ও মেশিনারি পণ্য নিয়ে দুটি রাশিয়ান জাহাজ মোংলা বন্দরে ভিড়েছে। রোববার (২৯ জানুয়ারি) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে ভিড়ে ‘আনকা সান’ ও সন্ধ্যা ৭টায় ৮ নম্বর জেটিতে ভিড়ে ‘সাপোডিলা’।

বন্দরের হারবার মাস্টার ক্যাপ্টেন শাহীন মজিদ জানান, পারমাণবিক বিদ্যুৎ-কেন্দ্রের ইলেকট্রিক্যাল মালামাল নিয়ে ভেনুটা পতাকাবাহী জাহাজ এমভি আনকা সান বিকেল পৌনে ৫টার দিকে মোংলা বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে পৌঁছায়। এক হাজার ৯৭৯ প্যাকেজের এক হাজার ৪০০ মেট্রিকটন ইলেকট্রিক্যাল পণ্য নিয়ে ২৬ ডিসেম্বর রাশিয়ার নভরস্কি বন্দর থেকে ছেড়ে আসে। এছাড়া রাশিয়ার সেন্ট পিটারসবার্গ বন্দর থেকে ৪৩৬ প্যাকেজের ৫১৮ মেট্রিকটন মেশিনারি পণ্য নিয়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে বন্দরের ৮ নম্বর জেটিতে ভিড়ে এম ভি সাপোডিলা।

বিদেশি জাহাজ আনকা সানের স্থানীয় শিপিং এজেন্ট কনভেয়ার শিপিং লাইন্স খুলনার ম্যানেজার (অপারেশন শিপিং) সাধন কুমার চক্রবর্তী ও সাপোডিলার স্থানীয় শিপিং এজেন্ট ইন্টারপোর্ট খুলনার ম্যানেজার অসিম মণ্ডল জানান, জেটিতে অবস্থান নেওয়া দুটি জাহাজ থেকে রাতে পণ্য খালাস শুরু হবে। এরপর সোম-মঙ্গলবার থেকে সেটি সড়ক পথে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে নেওয়া হবে।

এর আগে গত ২২ জানুয়ারি রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ-কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে পৌঁছায় বিদেশি জাহাজ এম ভি কামিল্লা।

সম্প্রতি সাতটি জাহাজ কোম্পানির ৬৯টি জাহাজে রূপপুরের মালামাল পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা জারি করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যার প্রেক্ষিতে রূপপুরের মালামাল নিয়ে রাশিয়া থেকে মোংলা বন্দরে ছেড়ে আসা এম ভি উসরা মেজরকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়া হয়নি তখন। ওই জাহাজটির ২৪ ডিসেম্বর মোংলা বন্দরে ভিড়ার সিডিউল ছিল। পরে অবশ্য ওই জাহাজটি পণ্য খালাসে ভারতে গেলে সেখানেও পণ্য খালাস করতে না পেরে ফেরত যায় উসরা মেজর।

সূত্র: জাগো নিউজ

 

,


আরো খবর: