রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:২৬ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

রামুর ব্যাংডেবা গ্রামে ২ কিশোরকে পিটিয়ে আহত করলো বনকর্মীরা

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শনিবার, ২ জুলাই, ২০২২

সোয়েব সাঈদ, রামু::

রামুর জোয়ারিয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের দূর্গম জনপদ ব্যাংডেবা গ্রামের ২ কিশোরকে পিটিয়ে ও পানিতে চুবিয়ে আহত করেছে বনকর্মীরা। শুক্রবার, ১ জুলাই রাতে এ ঘটনা ঘটে। এতে আহত ২ কিশোরকে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলো- ব্যাংডেবা গ্রামের নুরুল আলমের ছেলে তোফায়েল আহমদ (১৫) ও ফকির মোহাম্মদের ছেলে একেরাম উল্লাহ (১৭)।
আহত ২ কিশোর ও তাদের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন- বিটের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এলাকার শিশু-কিশোরদের তাদের যে কোন কাজ করতে বাধ্য করতেন। শুক্রবার নিজেদের টাকায় বাজার আনার জন্য বলা হয়। পরে বাজার না আনার অজুহাতে ব্যাংডেবা বিট অফিসের লিটন মুন্সি ও রিপন মুন্সী তাদের বেত্রাঘাত করে এবং দীর্ঘক্ষণ পানিতে দাঁড়িয়ে থাকতে বাধ্য করে। এতে আহত হয়ে পড়েন কিশোর তোফায়েল ও একেরাম। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে শুক্রবার রাতে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।
ব্যাংডেবা বিট কর্মকর্তা জাগের হোছাইন জানিয়েছেন- ২ কিশোর বিট অফিসে গিয়ে তাদের গালিগালাজ করে। এজন্য অফিসের কর্মচারিরা তাদের মারধর করেছে।
এদিকে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধিন ২ কিশোরকে দেখতে গিয়েছেন বন বিভাগের জোয়ারিয়ানালা রেঞ্জ কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ টিটু। তিনি জানিয়েছেন- এ ব্যাপারে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ব্যাংডেবা গ্রামের বাসিন্দারা জানান- তাদের নিজস্ব কোন জমি নেই। বনের জমিতে বসবাস করে তারা বনরক্ষায় কাজ করেন। কিন্তু বিট অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারী এ অজুহাতে গ্রামবাসীকে নানাভাবে হয়রানি করে আসছেন। এমনকি তাদের চাহিদামতো কখনো অর্থ, কখনো বাজারও করে দিতে হয়। এমনকি তাদের অফিসের অনেক কাজও গ্রামবাসীকে করতে হয়। তাদের কথার অবাধ্য হলেই চালানো হয় নির্যাতন।


আরো খবর: