বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

যেসব খাবারের পর পানি খেলেই বিপদ

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ৯ মে, ২০২৪
যেসব খাবারের পর পানি খেলেই বিপদ


শরীরকে সুস্থ রাখতে ও রোগ প্রতিরোধ করার জন্য প্রতিদিন নিয়ম মেনে পানি পানের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। প্রাপ্তবয়স্ক নারী-পুরুষের দিনে অন্তত ৩ থেকে ৪ লিটার পানি খাওয়া দরকার। তবে আবহাওয়া ও শারীরিক শ্রমের ওপর অনেক সময় পানি পান নির্ভর করে।

কিন্তু পানি খাওয়ায়ও আবার বারণ আছে। বিশেষ করে, কিছু খাবার রয়েছে যেগুলো খাওয়ার পর পানি পান করা একদমই উচিত নয়। করলে আসতে পারে বড় বিপদ। তাহলে দেরি না করে জেনে নিন কোন কোন খাবারের পর পানি পান করলে হতে পারে বিপদ।

ফল খাওয়ার পর

যে কোনো ফল খেয়ে সঙ্গে সঙ্গে পানি পান করা উচিত নয়। কারণ, ফলে ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ পানি থাকে। এছাড়া থাকে চিনি, সাইট্রিক অ্যাসিড। তাই ফল খাওয়ার পর পর পানি পান করলে সমস্যা হতে পারে। পেটের সমস্যা এর মধ্যে অন্যতম। তাই, যে ফলই খান না কেন, তার অন্তত আধ ঘণ্টা পর পানি পান করা উচিত।

আইসক্রিম খাওয়ার পর

আইসক্রিম গরমে বেশ শান্তি এনে দেয়। কিন্তু এই খাবারটি খাওয়ার পরই পানি পান করা একদমই ঠিক নয়। এতে উপকার তো হবেই না, বরং ক্ষতি হতে পারে। আইসক্রিম খাওয়ার পর পানি পান করলে অনেকের দাঁত শিরশির করে। দাঁতের জোরও কমতে পারে। পাশাপশি গলা ব্যথাও হতে পারে। তাই আইসক্রিম খাওয়ার অন্তত ১৫ মিনিট পর পানি পান করুন।

চা-কফি পানের পর

বাঙালির কাছে অত্যন্ত পছন্দের পানীয় হলো চা। সকাল-বিকাল-রাত চা পানের কোনো নির্দিষ্ট সময় নেই! অনেকেই শখ করে চা পান করেন। সঙ্গে আছে কফি। এই পানীয় দুটি সাধারণত খুব গরম খেয়ে থাকেন অনেকেই। এর কারণে হজম প্রক্রিয়া খানিকটা ধীরে হয়।

ঠাণ্ডা বা গরম যে ভাবেই চা-কফি পান করেন না কেন, সঙ্গে সঙ্গে পানি পান করবেন না। তাহলে হজমে গোলমাল হতে পারে। এছাড়া গরম পানীয় খাওয়ার পরেই ঠান্ডা পানি খেলে গলায় ব্যথাও হতে পারে।

ছোলা খাওয়ার পর

ছোলা খাওয়ার পর পর কখনো পানি পান করা ঠিক নয়। কারণ ছোলা হজম করার জন্য অনেকটা এনজাইম দরকার হয়। এটার পরিমাণ কমে যায় সঙ্গে সঙ্গে পানি পান করলে। এই এনজাইম দ্রবীভূত হয়ে যায় এতে। ফলে ছোলা হজম হতে সময় বেশি লাগতে পারে।

এমনকি পেটের গোলমালও হতে পারে ছোলা খাওয়ার পর পরই পানি পান করার ফলে। তাই ছোলা খাওয়ার পর অন্তত ২০ থেকে ২৫ পর পানি পান করার পরামর্শ দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

আইএ





আরো খবর: