শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:০৬ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

মহেশখালীতে পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও মদ উদ্ধার, আটক-৪

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: বুধবার, ১১ জানুয়ারি, ২০২৩

গাজী মোহাম্মদ আবু তাহের,মহেশখালী::

দ্বীপ উপজেলা মহেশখালী হোয়ানক ইউনিয়নের কেরুনতলী এলাকার চৌচালা ঘোনা গহীন পাহাড়ে গভীর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ১৫০ লিটার চোলাই মদ, একটি একনলা দেশীয় তৈরী বন্দুক, ৬ রাউন্ড কার্তুজ, দুইটি ধারালো দা মদ তৈরির ৩’শ লিটার উপাদান (ওয়াশ) উদ্ধার করেছে মহেশখালী থানা পুলিশ।

১১ জানুয়ারী গভীর রাতে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রণব চৌধুরীর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার হোয়ানকের কেরুনতলী চৌচালা ঘোনা গহীন পাহাড়ী এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়।

এসময় ওই চোলাই মদ উৎপাদন কেন্দ্র থেকে সিএনজি ড্রাইবারের আড়ালে বহু অপকর্মে হুতা মহেশখালী পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড দাসিমাঝি পাড়ার মৃত নুর আহমদের পুত্র নাছির উদ্দিন (৪১), ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের ঠাকুরতলা এলাকার জ্যোতিষ দে এর পুত্র
দুলাল দে (৩৮),বড় মহেশখালী ইউনিয়নের পশ্চিম দেভাঙ্গাপাড়ার মৃত জোনাব আলীর পুত্র জসীমউদ্দীন (৩৬), একই ইউনিয়নের মনু মিয়া সিকদার পাড়ার মনসুর আলীর পুত্র মোঃ শরীফ (৫৫) কে আটক করা হয়।

মহেশখালী থানা সূত্রে জানা যায়, আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা দীর্ঘদিন যাবত ওই জায়গায় চৌলাই মদ প্রস্তুত করে আসছে।

উৎপাদনকৃত চোলাই মদ মহেশখালী, কক্সবাজার সহ বিভিন্ন জায়গায় পাইকারি দরে সরবরাহ করে আসছিল বলে স্বীকার করে এবং মদের কারাখানা পাহারার জন্য দেশীয় তৈরী অস্ত্র ব্যবহারের কথা স্বীকার করে।

আটককৃত সিএনজি ড্রাইবার নাছির উদ্দিনের বিরুদ্ধে তিনটি মাদকের মামলা সহ মোট চারটি মামলা,আটক আসামী জসীমউদ্দীনের বিরুদ্ধে মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন এ একটি মামলা, আসামি দুলাল দে এর বিরুদ্ধে মাদক আইনে একটি মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

অভিযানের বিষয় নিশ্চিত করে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রণব চৌধুরী জানান-

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১১ জানুয়ারী রাত আনুমানিক ৩ ঘটিকার সময় হোয়ানক ইউনিয়নের কেরুনতলী দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে মদের কারাখানা থেকে মদ, দেশীয় অস্ত্র, মদ তৈরীর উপাদান, কার্তুজ ও ধারালো দা উদ্ধার করা হয়।

আটক আসামিদের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে মাদক ও মানবপাচারের মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানায় মাদক আইন এবং অস্ত্র আইনে পৃথকভাবে দুইটি মামলা প্রস্তুত করা হচ্ছে।

এছাড়া মহেশখালীতে মাদকের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানার এই অভিযান অভ্যহত থাকবে বলেও জানান মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি প্রনব চৌধুরী।


আরো খবর: