শিরোনাম ::
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে ১৪৪ ধারা জারি

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে ১৪৪ ধারা জারি


ইসলামবাদ, ২৪ ফেব্রুয়ারি – পাকিস্তানের সিন্ধুর প্রাদেশিক পরিষদের প্রথম অধিবেশন আজ শনিবার শুরু হবে। অধিবেশনকে সামনে রেখে প্রাদেশিক পরিষদ ভবন এলাকায় বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। এমন পরিস্থিতিতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিক রাখতে ১৪৪ ধারা জারি করেছে সিন্দু সরকার।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি সিন্ধুর প্রাদেশিক পরিষদের অধিবেশন ডেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেন প্রদেশের গভর্নর কামরান খান টেসোরি। সেখানে বলা হয়, শনিবার বেলা ১১টায় প্রাদেশিক পরিষদের উদ্বোধনী অধিবেশন শুরু হবে।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে জাতীয় ও পাঁচটি প্রদেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিন সিন্ধু প্রদেশেও ভোট হয়। পাকিস্তানের অন্যান্য প্রদেশের মতো এই প্রদেশে সরকার গঠন নিয়ে তেমন কোনো ঝামেলা নেই। এখানে রেকর্ড টানা চতুর্থ মেয়াদে সরকার গঠন করতে চলেছে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)।

পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন ইসিপির তথ্য অনুযায়ী, এবারের সিন্ধু প্রদেশের নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি ৮৪টি আসন পেয়েছে পিপিপি। এ ছাড়া এমকিউএম-পি ২৮টি, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ১৪টি, জিডিএ দুটি এবং জেআই দুটি আসন পেয়েছে। এছাড়া নারী ও সংখ্যালঘুদের জন্য সংরক্ষিত আসন থেকে ২৬টি আসন পেয়েছে পিপিপি এবং এমকিউএম-পি পেয়েছে আটটি সংরক্ষিত আসন।

তবে পিটিআই, জেআই, ও জিডিএ ভোটের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা বলছে, ৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি হয়েছে। এর প্রতিবাদে সম্মিলিত সংগ্রাম শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে দলগুলো। আজ শনিবার প্রদেশব্যাপী বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়েছে। এমনকি প্রাদেশিক পরিষদ ভবনের সামনে পর্যন্ত বিক্ষোভ ডাকা হয়েছে।

অবশ্য সিন্ধুর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার (অবসরপ্রাপ্ত) হারিস নওয়াজ বলেছেন, প্রাদেশিক পরিষদ ভবনের আশেপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা কার্যকর রয়েছে। তাই এই এলাকায় কোনো মিছিল বা বিক্ষোভ করা যাবে না।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিশ্চিত করতে প্রাদেশিক পরিষদ ভবনের আশেপাশের এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যারা শান্তি বিঘ্নিত করবে বা বেআইনি কর্মকাণ্ডে জড়িত হবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ
আইএ/ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪





আরো খবর: