বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১১:৪৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

জৈন্তাপুরে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রী নিহত

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২৩


সিলেট, ১৮ নভেম্বর – সিলেটের জৈন্তাপুরে সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের কাটাগাঙ এলাকায় বাস ও সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে স্বামী ও স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় চালক আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সকাল ১১টায় সিলেট তামাবিল মহাসড়কের কাটাগাঙ নামক স্থানে সিলেটগামী বাস (সিলেট -ব ১১-০৬৫৫) এর সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা জাফলংগামী সিএনজি অটোরিকশা (সিলেট -থ -১২-৯৫৮০) এর মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

নিহতরা হলেন- বাদশা মিয়া (৬০) ও তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৫০)। তারা সিলেট সদরের খাদিমপাড়া ৩ নং রোড এলাকায় বাসিন্দা। তারা উভয়ই সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী ছিলেন। আহত সিএনজি অটোরিকশা চালক মিজানুর রহমান (২৫)। তিনি একই এলাকার তাজুল ইসলামের পুত্র।

তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সিলেট তামাবিল মহাসড়কের নিকট কাটাগাঙ নামক স্থানে সিলেটগামী বাসের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা জাফলংগামী সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুর্ঘটনাস্থল থেকে তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয়দের সহায়তায় গুরুতর আহত অবস্থায় সিএনজির তিন জনকে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রোকেয়া বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত রোকেয়া বেগমের স্বামীকে দ্রুত সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আহত সিএনজি চালক মিজানুর রহমান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ দিকে যাত্রীবাহী বাস ও দুর্ঘটনা কবলিত সিএনজি অটোরিকশা তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

তামাবিল হাইওয়ে পুলিশের ওসি জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা খবর পেয়ে তিন জনকে উদ্ধার করে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রোকেয়া বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত রোকেয়া বেগমের স্বামীকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। আহত সিএনজি চালক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। বাস-সিএনজি অটোরিকশা আমাদের হেফাজতে রয়েছে।

সূত্র: কালবেলা
আইএ/ ১৮ নভেম্বর ২০২৩

সম্পুর্ন খবরটি পড়ার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ::জৈন্তাপুরে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রী নিহত first appeared on DesheBideshe.


আরো খবর: