রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:২২ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

চকরিয়ার প্রখ্যাত আলেম হাফেজ বশির নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত,তারাবির নামাজের সময় ইট পাটকেল নিক্ষেপ

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: বুধবার, ২৭ মার্চ, ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক,চকরিয়া::

কক্সবাজারের চকরিয়ায় একটি মাদরাসায় তারাবির নামাজের সময় মহিলাদের উপর রাতের বেলায় ইট পাটকেল নিক্ষেপ করার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করে পরিবারের হাতে তুলে দিয়ে বিচার চাইতে গিয়ে উল্টো হামলার শিকার ও নিজের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এই জনপদের প্রখ্যাত আলেম ও জনপ্রিয় ওয়ায়েজ হাফেজ মাওলানা বশির আহমদ। পাশাপাশি তাঁর মাদরাসায় হামলা চালানোর হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। চকরিয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের পুকপুকুরিয়া রাজধানী পাড়া এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা।

হাফেজ বশির আহমদ বলেন, মাহে রমজান শুরুর দিন থেকে পৌরসভার রাজধানী পাড়াস্থ তাঁর প্রতিষ্ঠিত রহমানিয়া বালক বালিকা হাফেজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানার বিল্ডিংয়ের নীচতলায় এলাকার পুরুষদের জন্য ও দ্বিতীয়তলায় ধর্মপ্রাণ মহিলাদের জন্য খতমে তারাবি নামাজের আয়োজন করা হয়েছে। প্রথমদিকে কোন সমস্যা না থাকলে গত এক সপ্তাহ ধরে রাতের বেলায় তারাবি নামাজের সময় কে বা কারা মাদরাসা লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করছে। এ অবস্থায় মহিলা নামাজিদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

হাফেজ বশির আহমদ বলেন, ঘটনাটি মহিলা মুসল্লীরা আমাকে জানালে তারাবির নামাজ পড়ার সময় গত তিনদিন ধরে আমি পাহারাদার দিই। একপর্যায়ে মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) রাত আনুমানিক পৌনে নয়টার দিকে ইট পাটকেল নিক্ষেপকালে পাহারাদাররা হোজাইফা নামের এক কিশোরকে ধরে আমার কাছে নিয়ে আসে। পরে আমি ওই কিশোরের মামা দিগরপানখালী এলাকার কফিল উদ্দিনকে ঢেকে এনে বিস্তারিত ঘটনা বলে ভাঙ্গারমুখ মসজিদের ইমাম হাফেজ আবুল হোছাইনের উপস্থিতিতে আটক কিশোরকে তাঁর হাতে তুলে দিই। এসময় কফিল উদ্দিনকে বলি, আপনার ভাগিনাসহ জড়িতরা কী কারণে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করছে, নাকি তাদেরকে কেউ একাজের জন্য উৎসাহিত করছে, আমাকে একটু জানাবেন।

হাফেজ বশির আহমদ অভিযোগ করে বলেন, আমার মাদরাসায় ইট পাটকেল নিক্ষেপ করার ঘটনায় বিচার চাইতে গিয়ে এখন জড়িতরা জোটবদ্ধ হয়ে আমি এবং আমার পরিবার সদস্যদের উপর হামলা চালানোর জন্য নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে। পাশাপাশি তাঁরা আমার মাদরাসায় আক্রমণ করার জন্য হাঁকা বকা করছে। রাতের আঁধারে মাদারসা
লাগোয়া সাইনবোর্ডে চিকা মেরেছে। এই অবস্থায় আমি এবং আমার পরিবার সদস্যরা নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়েছি। এ ঘটনায় আমি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।

ভুক্তভোগী হাফেজ বশির আহমদ বলেন, আমার এতিমখানা নিয়ে আগে থেকে একটি কতিপয় মহল চক্রান্ত করে যাচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাদের ইন্ধনে মজিদিয়া মাদারাসায় পড়ুয়া শিক্ষার্থী হোজাইফাসহ জড়িতরা ইট পাটকেল নিক্ষেপ করছে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ বলেন, এধরণের ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। তবে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। #


আরো খবর: