শিরোনাম ::
মিয়ানমারের নৌবাহিনীর গুলিতে ২ বাংলাদেশি গুলিবিদ্ধ পেকুয়ায় আরো দুটি অবৈধ করাতকল সিলগালা চকরিয়া বদরখালীতে গুলি করে হাত-পা কেটে যুবককে খুনের মামলার আসামি শাকিল গ্রেপ্তার রামুতে বৌদ্ধদের স্বর্গপূরী উৎসবে নারী-পুরুষের ঢল পালিয়ে বাংলাদেশে বিজিপির আরও ১১ সদস্য টেকনাফ র‍্যাবের পৃথক অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্টভুক্ত ৪ আসামী গ্রেফতার র‍্যাবের অভিযানে স্বামী হত্যায় পরকীয়া প্রেমিকসহ স্ত্রী গ্রেফতার পেকুয়ায় রেঞ্জ কর্মকর্তাকে টাকা দিলেই মেলে পাহাড় কাটার অনুমতি নির্বাচনী কর্মকর্তাদের কক্সবাজার ভ্রমণের লোভ দেখালেন চেয়ারম্যান প্রার্থী শখের বাইক নিয়ে আসা হলো না কক্সবাজার, পিকআপের ধাক্কায় প্রাণ গেল যুবকের
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৩২ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

গাজায় যুদ্ধ নয় গণহত্যা চলছে

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
গাজায় যুদ্ধ নয় গণহত্যা চলছে


ব্রাসিলিয়া, ১৮ ফেব্রুয়ারি – ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট লুলা দা সিলভা দখলদার ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ‘গণহত্যার’ অভিযোগ তুলেছেন। এছাড়া ইসরায়েলকে জার্মানির সাবেক প্রেসিডেন্ট ও নাৎসি বাহিনীর প্রধান এডলফ হিটলারের সঙ্গে তুলনা করেছেন তিনি। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, হিটলার যেমন ইহুদিদের নির্মূল করতে চেয়েছিলেন; তেমনই এখন ইসরায়েল গাজার ফিলিস্তিনিদের নির্মূল করতে চাইছে।

এ ব্যাপারে রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সাংবাদিকদের লুলা বলেছেন, “গাজায় যা হচ্ছে সেটি যুদ্ধ নয়, এটি একটি গণহত্যা। এটি সেনাদের বিরুদ্ধে সেনাদের যুদ্ধ নয়। এটি নারী ও শিশুদের বিরুদ্ধে অত্যাধুনিক সেনাবাহিনীর একটি যুদ্ধ।”

“গাজাবাসীর সঙ্গে যা হচ্ছে তা ইতিহাসে আর কখনো ঘটেনি। আসলে, ঘটেছে; যখন হিটলার ইহুদিদের হত্যার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।”

আফ্রিকান ইউনিয়নের সম্মেলনে অংশ নিতে ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় গেছেন ব্রাজিলিয়ান প্রেসিডেন্ট। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় এসব মন্তব্য করেন তিনি। যা হামাস ও দখলদার ইসরায়েলের মধ্যে যুদ্ধ শুরুর পর তার সবচেয়ে কঠোর ইসরায়েল বিরোধী বক্তব্য।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের বিভিন্ন অবৈধ বসতিতে হামলা চালায় ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস। ওই হামলাকে ব্রাজিলিয়ান প্রেসিডেন্ট প্রথমে ‘জঙ্গি হামলা’ হিসেবে অভিহিত করেছিলেন।

কিন্তু যখন ইসরায়েলি সেনারা গাজার নিরীহ মানুষের ওপর বর্বরতা শুরু করে; তখন ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন তিনি।

হামাস ওইদিন প্রায় ১ হাজার ২০০ ইসরায়েলিকে হত্যা করে। এছাড়া তারা ২৫০ জনকে ধরে গাজায় নিয়ে আসে।

ওই হামলার পর ইসরায়েল হামাসকে পুরোপুরি নির্মূলের ঘোষণা দেয়। তবে হামাসের যোদ্ধাদের নির্মূল করতে গিয়ে সাধারণ মানুষের ওপর ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালায় তারা। ইসরায়েলিদের হামলায় গাজায় এখন পর্যন্ত ২৯ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও প্রায় ৭০ হাজার মানুষ।

সূত্র: ঢাকা পোস্ট
আইএ/ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪





আরো খবর: