শিরোনাম ::
নিউ ক্যালেডোনিয়ায় বিক্ষোভে নিহত ৪, জরুরি অবস্থা জারি জার্মানিতে বাড়িতে বিস্ফোরণ, আগুন পুড়ে মৃত্যু ৩ টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে কোটি টাকার আইসসহ আটক-১ সংস্কারের অভাবে মরণ ফাঁদে পরিণত উখিয়ার রুমখাঁপালং-হাতিরঘোনা স্কুল সড়ক উখিয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী চশমা মার্কার সমর্থনে প্রচারণা উখিয়ায় হ্যান্ডগ্রেনেড ও বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসহ চার রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার মেরিন ড্রাইভে রেন্ট বাইক দুর্ঘটনায় সদ্য বিবাহিত পর্যটকসহ নিহত ২ কবর দেওয়ার চারদিন পর বৃদ্ধকে জীবিত উদ্ধার তারুণ্যের বার্তা নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে প্রার্থী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক রাসেল আজ থেকে মাঠে নামছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

কুমিল্লায় সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা বাসে আগুন

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২৩


কুমিল্লা, ১৭ নভেম্বর – কুমিল্লা নগরীতে দাঁড়িয়ে থাকা একটি বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে। তবে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোয় বাসটি পুরোপুরি পোড়া থেকে রক্ষা পায়। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) রাত ১০টার দিকে নগরীর ঢুলিপাড়া ভাঙা বিল্ডিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢুলিপাড়া ভাঙা বিল্ডিং এলাকার মান্নান ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা বাসে আগুন জ্বলতে দেখেন স্থানীয়রা।

পরে ওয়ার্কশপের কর্মীরা মালিক জালাল উদ্দিনকে কল দিলে তিনি ৯৯৯-এ জানান। বাড়ির পাশে হওয়াতে তাৎক্ষণিক ফায়ার সার্ভিসের ইপিজেড স্টেশনেও খবর জানানো হয়। পরে ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ওয়ার্কশপের মালিক জালাল উদ্দিন বলেন, ‘আমাকে কল দিয়ে আগুনে খবর জানান কর্মীরা।
আমি তাৎক্ষণিক ৯৯৯-এ কল দেই। পরে আমি নিজেই গাড়ি নিয়ে স্টেশনে চলে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজনসহ গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। তবে কে বা কারা আগুন লাগিয়েছে তা জানি না।

কুমিল্লা ইপিজেড ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে কর্মরত আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘৯৯৯-এ কল এলে তাৎক্ষণিক ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কেউ হতাহত হয়নি। কে বা কারা আগুন লাগিয়েছে নাকি আগুন লেগেছে এ বিষয়ে এখনও জানিনা। দ্রুত সময়ে খবর পাওয়ায় বাসটিকে পুরোপুরি আগুনে পুড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে।’

কুমিল্লা সদর সদর দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর ভূঁইয়া বলেন, ‘স্থানীয়রা বলছিলেন তিনটি মোটরসাইকেলে করে তিন আরোহী এসে প্রথমে বাসটির গ্লাস ভাঙে।

পরে তারা পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়।’
তিনি আরো বলেন, ‘বাসটি মেরামতের জন্য সাত দিন আগে থেকেই এখানে ছিল। সেটির মেরামত কাজও চলছিল। রাতে এ ঘটনা ঘটলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।’

সূত্র: কালের কন্ঠ
আইএ/ ১৭ নভেম্বর ২০২৩


আরো খবর: