রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৪৬ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

‘কারার ঐ লৌহ কপাট’ বিতর্কে মুখ খুললেন এআর রহমান

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শুক্রবার, ১২ জানুয়ারি, ২০২৪
‘কারার ঐ লৌহ কপাট’ বিতর্কে মুখ খুললেন এআর রহমান


মুম্বাই, ১২ জানুয়ারি – ২০২৩ সালের অন্যতম বিতর্কিত বিষয় ছিল কাজী নজরুলের গান ‘কারার ওই লৌহ কপাট’। যে গানটি নতুনভাবে সুর দিয়ে তৈরি করেছিলেন সুরকার এআর রহমান। ভারতীয় সিনেমা ‘পিপ্পা’তে ব্যবহৃত এই গান প্রকাশ্যে আসার পর নজরুল ভক্তদের সমস্ত ক্ষোভ গিয়ে পড়ে তার ওপর।

অন্যদিকে নজরুল পরিবারের একাংশও প্রশ্ন তোলেন তার দিকে। সেই বিতর্কের পর সেভাবে সুরকারকে দেখেননি অনুরাগীরা। কোথাও কোনো মন্তব্যও করেননি তিনি। তবে নতুন বছরে শোনা গেল তার মন্তব্য। না, তবে এবারও সেই বিতর্ক নিয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি। সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে ‘দ্য অক্সফোর্ড ইউনিয়ন ডিবেটিং সোসাইটি’র ছাত্রছাত্রীদের সাথে কথা বলছিলেন গায়ক।

তাদের সাথে আলোচনা প্রসঙ্গে উঠে আসে অনেক ধরনের বিষয়। সেখানেই গায়ক জানান তার মা শিখিয়েছিলেন, কিভাবে জীবনের ব্যর্থতার সম্মুখীন হতে হয়। অন্ধকার সময়, নেতিবাচক ভাবনা থেকে বেরিয়ে আসা যায়। জীবনে একটা সময় নানা ধরনের উল্টোপাল্টা খেয়াল আসত তার মাথায়।

ছোটদের সাথে কথা বলতে গিয়ে মায়ের দেয়া পরামর্শই সকলের সাথে ভাগ করে নেন এআর রহমান। তিনি বলেন, ছোট বয়সে অনেক সময় নিজেকে শেষ করে ফেলার ভাবনা এসেছে আমার মাথায়। সেই ভাবনা থেকে নিজেকে বের করার জন্য আমায় অনেক কষ্ট করতে হয়েছে।

সে সময় মা আমায় বলেছিলেন, ‘যখন আমি অন্যের জন্য বাঁচব তখন আর এসব ভাবনা আমার মাথায় আসবে না।’ মায়ের সেই কথাগুলো তিনি এখনো ভোলেননি। এই পরামর্শ এখনো প্রতিটা পদক্ষেপে মেনে চলেন তিনি।

এআর রহমান মনে করেন, স্বার্থপর না হয়ে অন্য কারো জন্য বাঁচলে তবেই সেটাকে জীবন বলে। কারো জন্য সুর বাঁধা হোক কিংবা কারো জন্য খাবার কেনা- নিজের জন্য না ভেবে চারপাশের মানুষের কথা ভাবলে কখনো নেতিবাচক চিন্তাভাবনা মনকে প্রভাবিত করে না।

আইএ/ ১২ জানুয়ারি ২০২৪





আরো খবর: