বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

কথা রাখলেন সালমান, দেখা করলেন ক্যানসারজয়ী ভক্তের সঙ্গে

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২৪
কথা রাখলেন সালমান, দেখা করলেন ক্যানসারজয়ী ভক্তের সঙ্গে


মুম্বাই, ২৫ জানুয়ারি – আজ থেকে বছর ছয়েক আগে ক্যানসার আক্রান্ত এক খুদে ভক্তকে দেওয়া কথা রাখলেন বলিউড ভাইজান খ্যাত সালমান খান। কিছুদিন আগে ৯ বার কেমোথেরাপির পর ক্যানসারজয়ী সেই খুদে ভক্তের সঙ্গে ফের দেখা করেছেন তিনি। সালমানের এ খুদে ভক্তের নাম জগনবীর। ভারতীয় গণমাধ্যম ‘ইন্ডিয়া টুডে’র সংবাদে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, ২০১৮ সালে ক্যানসার ধরা পড়ে জগনবীরের। সেই সময় তার বয়স ছিল চার বছর। জগনবীরের বাবা-মা ছেলেকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য মুম্বাইয়ে আসেন। মু্ম্বাইয়ের টাটা মেমোরিয়াল সেন্টারে জগনবীরকে ভর্তি করা হয়। মুম্বাইয়ে আসবে শুনেই জগনবীর মনে মনে সালমানের সঙ্গে দেখা করার স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। কারও কারও কাছে ভর্তি জগনবীর সেই কথা জানিয়েছেন।

জগনবীরের মা সুখবীর কৌর ছেলের স্বপ্নের কথা বেশ গুরুত্বে সঙ্গে নিলেন। তিনি হাসপাতালে ছেলের একটি ভিডিও রেকর্ড করেছিলেন। সেই ভিডিও জগনবীর সালমানের সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছা প্রকাশ করে। পরে এটি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। ভাগ্যক্রমে সেই ভিডিও সালমানের দৃষ্টি কাড়ে।

ঘটনা সত্যিই ব্যাটে বলে মিলে যায়। স্বপ্নপূরণ হয় জগনবীরের। সালমান জগনবীরের সঙ্গে হাসপাতালে এসে দেখা করে গিয়েছিলেন। যাওয়ার আগে সালমান জগনবীরকে বলেছিলেন, আবার দেখা হবে। তবে একটা শর্ত আছে। জগনবীরকে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে হবে। সেরে উঠলেই তিনি আবার দেখা করবেন তার সঙ্গে।

সালমানের সঙ্গে দ্বিতীয়বার দেখা করার ‘লোভে’ মনেপ্রাণে সুস্থ হয়ে উঠতে চাইছিল জগনবীর। চিকিৎসকেদের সব কথা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলেছে। কষ্ট হলেও মুখ ফুটে কিছুই বলেনি। অবশেষে এ যুদ্ধে জয়ী হয়েছে জগনবীর।

জগনবীর ৯ বার কেমোথেরাপির পর আপাতত ক্যানসারমুক্ত। সেদিনের ছোট্ট ছেলেটি এখন ৯ বছরের কিশোর। এদিকে জগনবীরের সুস্থ হয়ে ওঠার কথা জানতে পারেন সালমান। ৬ বছর আগে দেওয়া কথা রাখেন ভাইজান। সালমানের বান্দ্রার বাড়িতে জগনবীরের সঙ্গে দেখা হয় সালমানের।

এ প্রসঙ্গে জগনবীরের মা সুখবীর বলেন, ‘জগনবীর এখন অনেকটা সুস্থ। আবার স্কুলে যেতে শুরু করেছে। ও মন থেকে না চাইলে এত তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠা সম্ভব ছিল না। আর শুধু সালমানের সঙ্গে দেখা করবে বলেই ও সুস্থ হয়ে ওঠার এত তাড়া ছিল। আমরা কৃতজ্ঞ ভাইজানের কাছে।’ এ ঘটনাটি ভারতীয় অনেক গণমাধ্যম বেশ গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করেছে।

আইএ/ ২৫ জানুয়ারি ২০২৪





আরো খবর: