বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১১:২৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

‘কক্সবাজারের ১৫টি কমিউনিটি সেন্টার শিশুদের নিরাপদ আশ্রয়স্থল’

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২৪

কক্সবাজারে সেভ দ্য চিলড্রেন’র শিশু সুরক্ষা জোরদারকরণ প্রকল্পের অধিনে সমাজসেবা অধিদপ্তরের (ডিএসএস) সহযোগিতায় কক্সবাজার সদর উপজেলা, উখিয়া উপজেলা এবং ঈদগাঁও উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মোট ১৩টি কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ করা হয়েছে। আরো দুইটি কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণাধীন রয়েছে। জাপান সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে সমাজসেবা অধিদপ্তর ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর সহযোগিতায় কক্সবাজারে সেভ দ্য চিলড্রেন এই প্রকল্পটি পরিচালনা করছে। এই ১৫ টি কমিউনিটি সেন্টার শিশুদের জন্য নিরাপদ আশ্রয়স্থলে পরিণত করা হবে।

সোমবার সকালে কক্সবাজারে সেভ দ্য চিলড্রেন’র শিশু সুরক্ষা জোরদারকরণ প্রকল্প বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এমন তথ্য জানানো হয়েছে।
সকালে সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভা জানানো হয়, শিশু সুরক্ষামূলক কাঠামোগত উন্নয়নে সংশ্লিষ্ট সরকারি প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মীদের সাথে সক্ষমতা শেয়ার করা, সকল সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান থেকে নির্যাতনের শিকার ও ঝুঁকিতে থাকা শিশুদের জন্য সেবা প্রাপ্তি সহজতর করা এবং কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা ব্যবস্থা জোরদার করার লক্ষ্যে এই প্রকল্প।
সভায় সেভ দ্য চিলড্রেনের শিশু সুরক্ষা বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার ফিরোজ মোস্তফা বলেন, “আমাদের লক্ষ্য হলো একটি টেকসই ও সম্প্রীতির পরিবেশ তৈরি করা, যেখানে শিশুরা নিরাপদে বেড়ে উঠতে পারবে এবং তাদের সম্ভাবনাগুলি পূর্ণতা পাবে। এরই অংশ হিসেবে আমরা এসব কমিউনিটি সেন্টারগুলো নির্মাণ করেছি, যেখানে শিশুরা একটি নিরাপদ আশ্রয়স্থল পাবে। এখানে তারা শিশু সুরক্ষা সম্পর্কে শিখতে এবং তাদের অধিকার সম্পর্কে জানতে পারবে। আমরা চাই এই কেন্দ্রগুলি শুধু জরুরী পরিস্থিতির জন্যই নয়, বরং শিশুদের জীবনের আনন্দময় মুহূর্তগুলি উদযাপনের জন্যও একটি স্থান হোক। এই প্রকল্পের মাধ্যমে আমরা সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে এখানকার বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের ক্ষমতায়নের উপর জোর দিচ্ছি, যাতে তারা শিশু সুরক্ষা ব্যবস্থাকে আরো শক্তিশালী করতে পারে।“

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারজানা রহমান বলেন, “আমরা জানি, শিশুরা আমাদের ভবিষ্যত, এবং তাদের সুরক্ষা এবং অধিকার রক্ষা করা আমাদের সমাজের প্রতিটি সদস্যের দায়িত্ব। আমি বিশ্বাস করি, এই প্রকল্প শুধু শিশুদের জন্য নয়, সমগ্র সমাজের জন্য একটি সুরক্ষিত এবং সুস্থ ভবিষ্যত নির্মাণে অবদান রাখবে। পরিবার এবং সমাজের সকলের সহযোগিতাই পারে আমাদের শিশুদের জন্য একটি নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করতে।“
এসময় অন্যান্যের মধ্যে সেভ দ্য চিলড্রেন’র মিডিয়া এন্ড কমিউনিকেশন বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার মোহাম্মদ শহিদুল হক খান, শিশু সুরক্ষা বিভাগের ম্যানেজার কজুয়ে তাবেই-সহ স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
আন্তর্জাতিক সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশে এবং ২০১২ সাল থেকে কক্সবাজার জেলায় শিশুদের জন্য কাজ করছে। এছাড়াও উখিয়া ও টেকনাফে মানবিক সহায়তার পাশাপাশি বান্দরবান, রামু ও কুতুবদিয়ায় এই আন্তর্জাতিক সংস্থার বেশ কিছু উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে।


আরো খবর: