বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:১৬ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

কক্সবাজারের রামু বৌদ্ধ বিহারে নাশকতার চেষ্টা

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শনিবার, ৬ জানুয়ারি, ২০২৪

কক্সবাজারের রামু উপজেলার একটি বৌদ্ধ বিহারে নাশকতার চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার গভীর রাতে রামু উপজেলা সদরের চেরাংঘাটা বড় কেয়াং এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বিহারে ‘অজ্ঞাত দূর্বৃত্তদের’ দেয়া আগুনে বৌদ্ধ বিহারের সিঁড়ি পুড়ে গেছে।

রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু তাহের দেওয়ান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার গভীর রাতে রামু উপজেলা সদরের চেরাংঘাটা বড় কেয়াং এ ঘটনা ঘটে। তবে আগুনের সূত্রপাতের পাশাপাশি এটি নাশকতা নাকি, কোনো দুর্ঘটনা তা পুলিশ এখনো নিশ্চিত নয়।

এ দিকে, ঘটনার পরই কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহফুজুল ইসলামের নেতৃত্বে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং বৌদ্ধ বিহারের ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশনের (সিসিটিভি) ফুটেজ সংগ্রহ করেছেন।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, ‘শুক্রবার রাতে রামু উপজেলা সদরের চেরাংঘাটাস্থ রাখাইন সম্প্রদায়ের দেড় শ’ বছরের পুরানো কাঠের তৈরী ‘উসাইচেন বৌদ্ধ বিহারের ‘(বড় ক্যাং)’ পুরোহিতসহ অন্যরা প্রতিদিনের মতো ঘুমিয়ে পড়েন। একপর্যায়ে রাত ২টার দিকে আকস্মিক আগুন লেগে যায়। এ সময় বৌদ্ধ বিহারের ভিতরে অবস্থানকারী চিৎকার শুরু করলে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। পরে খবর পেয়ে রামু ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে বৌদ্ধ বিহারটির ভিতরে কাঠের তৈরী একটি সিঁড়ি পুড়ে গেছে। তবে তাৎক্ষণিক আগুন নিভিয়ে ফেলতে সক্ষম হওয়ায় বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি এড়ানো সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ‘রাতে ঘটনাটি শোনার পরই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বৌদ্ধ বিহারসহ আশপাশের সব সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ ঘটনা কিভাবে ঘটেছে বা কোনো দূর্বৃত্তরা ঘটিয়েছে কি-না পুলিশ তদন্ত করছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ খোঁজ খবর নিয়ে রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।


আরো খবর: