শিরোনাম ::
চকরিয়া বদরখালীতে গুলি করে হাত-পা কেটে যুবককে খুনের মামলার আসামি শাকিল গ্রেপ্তার রামুতে বৌদ্ধদের স্বর্গপূরী উৎসবে নারী-পুরুষের ঢল পালিয়ে বাংলাদেশে বিজিপির আরও ১১ সদস্য টেকনাফ র‍্যাবের পৃথক অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্টভুক্ত ৪ আসামী গ্রেফতার র‍্যাবের অভিযানে স্বামী হত্যায় পরকীয়া প্রেমিকসহ স্ত্রী গ্রেফতার পেকুয়ায় রেঞ্জ কর্মকর্তাকে টাকা দিলেই মেলে পাহাড় কাটার অনুমতি নির্বাচনী কর্মকর্তাদের কক্সবাজার ভ্রমণের লোভ দেখালেন চেয়ারম্যান প্রার্থী শখের বাইক নিয়ে আসা হলো না কক্সবাজার, পিকআপের ধাক্কায় প্রাণ গেল যুবকের সীতাকুণ্ডের পাঁচ গরু চকরিয়ায় উদ্ধার, অস্ত্রসহ তিন চোর গ্রেপ্তার ঈদগাঁওতে ইজিবাইকের ধাক্কায় শিশুর মৃত্যু
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:১৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

এক বছর আগে অপহৃত রোহিঙ্গা নেতার লাশ উদ্ধার!

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট: রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১

উখিয়া উপজেলায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এক বছর আগে অপহৃত সৈয়দ আমীন (৪০) নামের এক রোহিঙ্গা মাঝির লাশ একটি বাড়ির মেঝে থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাতে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অধিনায়ক পুলিশ সুপার (এসপি) সিহাব কায়সার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানান।

এ ঘটনায় তিন জনকে আটক করা হয়েছে।

এসপি সিহাব কায়সার জানান, গতকাল শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ক্যাম্প-১৪-এর ইনচার্জসহ (সিআইসি) থানা পুলিশের উপস্থিতিতে ইয়াকুব মাঝির ঘর থেকে সৈয়দ আমীনের লাশ উত্তোলন করা হয়। পরে তার স্ত্রী পরনে থাকা কাপড়, বেল্ট ও মাথার চুল দেখে নিজের স্বামীর লাশ বলে শনাক্ত করেন।

আটক তিন জন হলেন, উখিয়ার হাকিমপাড়ার ক্যাম্প-১৪ এর বাসিন্দা মো. ইসলাম (২২), আবদুল মোন্নাফ (২৬) ও মো. ইলিয়াস (২৮)।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উখিয়ার হাকিমপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১৪-এর ই/৩ ব্লকে মাঝি ও স্বেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে ব্লক রেইড পরিচালনা করে গতকাল শনিবার তিন রোহিঙ্গা দুষ্কৃতকারীকে আটক করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা স্বীকার করেন, চলতি বছরের জানুয়ারিতে চাকমারকুল ক্যাম্প-২১-এর সি/৪ ব্লকের সাব-মাঝি সৈয়দ আমীনকে অপহরণ করে ক্যাম্প-১৪-তে নিয়ে গিয়েছিলেন তারা।
অপহরণের পর তার পরিবারের কাছ থেকে মুক্তিপণ হিসেবে ৮০ হাজার টাকা দাবি করেন তারা। পরে ২০ থেকে ২৫ জন দুষ্কৃতকারী মিলে তাকে হত্যার পর ক্যাম্প-১৪ এর সাবেক মাঝি ইয়াকুবের পরিত্যক্ত ঘরের মেঝেতে লাশ পুঁতে রাখে।

এ ঘটনায় টেকনাফ থানায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান এসপি সিহাব কায়সার।


আরো খবর: