রবিবার, ২৬ মার্চ ২০২৩, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

একদিনের রিমান্ডে সীমা অক্সিজেন প্ল্যান্টের পরিচালক

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: বুধবার, ১৫ মার্চ, ২০২৩


চট্টগ্রাম, ১৫ মার্চ – চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সীমা অক্সিজেন লিমিটেডে বিস্ফোরণের ঘটনায় কারখানাটির পরিচালক পারভেজ হোসেনের (৪৮) একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (১৫ মার্চ) চট্টগ্রাম চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন নাহার রুমীর আদালতে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

চট্টগ্রাম জেলা কোর্ট পরিদর্শক জাকির হোসাইন মাহমুদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণের মামলায় সীমা অক্সিজেন লিমিটেডের পরিচালক পারভেজ হোসেনকে রিমান্ডে নিতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে ৭ দিনের আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) সন্ধ্যায় নগরের জিইসি মোড় থেকে পারভেজ হোসেনকে গ্রেপ্তার করে শিল্প পুলিশ চট্টগ্রাম ইউনিট। গত ৬ মার্চ রাত সাড়ে এগারোটায় বিস্ফোরণে নিহত আবদুল কাদেরের স্ত্রী রোকেয়া বেগম বাদী হয়ে সীমা অক্সিজেন প্লান্টের ৩ মালিকসহ (পারভেজ উদ্দিন সান্টু, মামুন উদ্দিন, আশরাফ উদ্দিন) ১৬ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলায় অন্য যাদের অভিযুক্ত করা হয়েছে তারা হলেন; প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার আব্দুল আলীম (৪৫), প্ল্যান্ট অপারেটর ইনচার্জ সামসুজ্জামান শিকদার (৬২), প্ল্যান্ট অপারেটর খুরশিদ আলম (৫০), প্ল্যান্ট অপারেটর সেলিম জাহান (৫৮), এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মো. কামাল উদ্দিন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা গোলাম কিবরিয়া, কর্মকর্তা সামিউল, শান্তনু রায়, ইদ্রিস আলী, সানা উল্লাহ, সিরাজ উদ-দৌলা, রাকিবুল ও রাজীব।

তবে মামলা দায়েরের এক সপ্তাহ পরও আসামিরা কেউ আটক হননি। ৮ম দিনে নগরী থেকে ২নং আসামি সীমা গ্রুপের মালিক পারভেজ উদ্দিন সান্টুকে গ্রেপ্তার করে শিল্প পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত ৪ মার্চ বিকেল সাড়ে ৪টায় সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের কদমরসুল এলাকার কেশবপুর গ্রামে সীমা অক্সিজেন প্ল্যান্টে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে সাতজন নিহত হন। আহত হন ৩০ জন। এ ঘটনায় কারও উড়ে গেছে হাত, কারও পা। বহু মানুষ পঙ্গুত্ববরণ করেছেন। এখনও অনেকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এ ঘটনায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের কাছে তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে কমিটি। তদন্ত প্রতিবেদনের বিস্তারিত প্রকাশ করা না হলেও প্রতিবেদনে এই ধরনের দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ৯টি সুপারিশ পেশ করা হয়েছে। এবং তদন্তে কারখানা পরিচালনায় মালিকপক্ষে অবহেলার প্রমাণ পেয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ১৫ মার্চ ২০২৩


আরো খবর: