শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

উখিয়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গাকে পিটিয়ে হত্যা

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: মঙ্গলবার, ১১ জুন, ২০২৪

কক্সবাজার উখিয়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গাকে পিটিয়ে হত্যা
কক্সবাজারের উখিয়া আশ্রয় ক্যাম্পে সৈয়দ আমিন (৩৫) নামের রোহিঙ্গা সলিডারিটি অরগানাইজেশনের (আরএসও) এক সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা করেছে সাধারণ রোহিঙ্গারা। মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৪ এ ঘটনা ঘটে।

ক্যাম্প সূত্র জানায়, মঙ্গলবার ক্যাম্প-৪ এর এ /৪ ব্লকে ব সৈয়দ আমিনকে একই ক্যাম্পের সাধারণ রোহিঙ্গারা পিটিয়ে আহত করে। পরে আশপাশের রোহিঙ্গারা তাকে ক্যাম্প সংলগ্ন জিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরএসও’র সদস্য ছিলেন বলে কথিত রয়েছে।

নিহত সৈয়দ আমিন (৩৫) উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৪ এ/৪ ব্লকের নাজির আহমেদের ছেলে। উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামীম হোসাইন বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে উল্লেখ করেন তিনি। উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামীম হোসাইন বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এরআগে সোমবার (১০ জুন) তিন রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। তাদের মাঝে দুজন আরসার এবং একজন আরএসও’র সদস্য। গত একমাস ধরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরএসও ও আরসার সদস্যরা মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলমান সংঘাতে সাধারণ রোহিঙ্গাদের জোরপূর্বক পাঠানোর জন্য বাধ্য করে আসছেন। এর জেরে আরএসও এবং আরসার সদস্যরা ক্যাম্পে অস্থিরতা সৃষ্টি করছেন। এ ঘটনার ক্ষোভ থেকে সাধারণ রোহিঙ্গারা এমন ঘটনা ঘটাতে পারে বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামীম হোসাইন বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে উল্লেখ করেন তিনি।


আরো খবর: