বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

উখিয়ায় শ্বশুর বাড়িতে গৃহবধূ হত্যা মামলায় ৩ আসামীকে জেলহাজতে প্রেরণ

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারি, ২০২৩

ফারুক আহমদ,উখিয়া::

কক্সবাজারের উখিয়ার হলদিয়া পালংয়ে প্রবাসীর স্ত্রী তাহমিনা আকতার (২২) চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ড মামলায় ভাসুর ও দেবরসহ ৩ জন আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে আদালত ।

গতকাল সোমবার (৯ জানুয়ারি) কক্সবাজার আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে চীপ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন জামিন নামঞ্জুর করে আসামীদেরকে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

আসামীরা হলেন, হলদিয়া পালং ইউনিয়নের মাতব্বর পাড়া (তৈলী পাড়া) গ্রামের হাজী আলী আহমদের পুত্র
হাসান আহমেদ, রবিউল উল্লাহ রবি ও সৈয়দ হোসাইন।

বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট রফিক উদ্দিন চৌধুরী সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উচ্চ আদালতের ৬ সপ্তাহের জামিন শেষ হওয়ায় আসামীরা নিম্ন আদালতে জামিনের প্রার্থনা করেন। বিজ্ঞ আদালত জামিন নামঞ্জুর করে আাসামীদের জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
গত ৬ নভেম্বর সৌদি প্রবাসী মনজুর আলমের স্ত্রী তাহামিনা আক্তার (২২) কে পিটিয়ে হত্যা করে শ্বশুর বাড়ির ভাসর ও দেবররা। ওই সময় প্রবাসী স্বামী মনজুর আলম সৌদি আরবে ছিলো।

এ ব্যাপারে নিহতের ভাই সাদ্দাম হোসেন বাদী হয়ে তিন জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে। যার মামলা নম্বর ৩১। তারিখ ৯/১১/২০২২ ইংরেজি।
জানা যায়, হলদিয়া পালং ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ রশিদের কন্যা তাহমিনা আক্তারের সাথে একই ইউনিয়নের মাতব্বরপাড়ার (তৈলী পাড়া) হাজী আলী আমাদের পুত্র সৌদি প্রবাসী মনজুর আলমের সাথে বিবাহ হয়। তাদের সংসারে আড়াই বছরের পুত্র সন্তান রয়েছে।

নিহতের ভাই সাদ্দাম হোসেন জানান, ভগ্নিপতি মঞ্জুর সৌদি আরবে থাকার সুযোগে পারিবার দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে আমার বোনকে অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করে ভাসুর হাসান দেবর রবি ও ছৈয়দ হোসেন।

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত আসামিদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।


আরো খবর: