শিরোনাম ::
রাইসির মরদেহ তেহরানে, বৃহস্পতিবার মাশহাদে দাফন ঈদগাঁও উপজেলায় সহিংসতার মধ্য দিয়ে নির্বাচন সম্পন্ন : তালেব চেয়ারম্যান নির্বাচিত মাদক ও স্বর্ণ চোরাচালানের গডফাদার সাইফুল ধরাছোঁয়ার বাইরে! শাহরুখের চরম আপত্তি, ইচ্ছে থাকলেও এই কাজ করতে পারেন না গৌরী আইসিসিতে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন চকরিয়ায় সাবেক এমপি জাফরকে হারিয়ে সাঈদি পুনরায় উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত মোদি হয়ে পর্দায় আসছেন ‘কাটাপ্পা’ কক্সবাজার বেড়ানোর নামে যাত্রী বেশে বাসে ইয়াবা বহন মহেশখালীতে টমটম কেড়ে নিলো শিশু আইজা মণির প্রাণ উপজেলা নির্বাচনেও হারলেন চকরিয়ার সাবেক এমপি জাফর
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে গ্রেফতার দুই জঙ্গি নেতা রিমান্ডে

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে গ্রেফতার দুই জঙ্গি নেতা রিমান্ডে

 

 উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে র‍্যাবের অভিযানে গ্রেফতার জঙ্গি সংগঠন ‘জামায়াতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্কিয়ার’ দুই নেতার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে বান্দরবানের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এএসএম এমরান তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

তারা হলেন জামায়াতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্কিয়ার সামরিক শাখার প্রধান রণবীর ও তার সহযোগী বোমা বিশেষজ্ঞ আবুল বাসার মৃধা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আদালত পুলিশের পরিদর্শক আব্দুল মজিদ বলেন, ‘সন্ত্রাস ও রাষ্ট্রদোহী মামলায় সাত জঙ্গির সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। এ সময় রণবীর ও আবুল বাসারের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক। বাকিদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।’

গত ২৩ জানুয়ারি কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকায় জঙ্গিদের সঙ্গে র‌্যাবের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। সেখান থেকে রণবীর ও তার সহযোগী আবুল বাসারকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে দেশি-বিদেশি অস্ত্র এবং গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়। ২৪ জানুয়ারি বান্দরবান চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তা‌দের তোলা হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে বান্দরবান থেকে তাদের আরও পাঁচ সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়। পরে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় তাদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও রাষ্ট্রদোহী মামলা করা হয়। ওই মামলায় রণবীর, আবুল বাসার, নিজাম উদ্দীন, মো. সাদিকুর রহমান, সালেহ আহমদ, মো. ইমরান বিন রহমান, বায়েজিদ ইসলামসহ সাত জনকে আদালতে নিয়ে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। এরই পরিপ্রেক্ষিতে রণবীর ও আবুল বাসারের রিমান্ড মঞ্জুর করে বাকিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি টান্টু সাহা বলেন, ‘অভিযানস্থল কুতুপালং হলেও অস্ত্র উদ্ধার এবং জঙ্গি সংগঠনের সদস্যদের নাইক্ষ্যংছড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাই মামলাটি নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় করা হয়েছে। ওই মামলায় দুই রণবীর ও আবুল বাসারের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বিচারক।’


আরো খবর: