শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৪:৩৫ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

আমেরিকায় গ্রিনকার্ডের অপেক্ষায় নায়িকা মৌসুমী!

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: সোমবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৪
আমেরিকায় গ্রিনকার্ডের অপেক্ষায় নায়িকা মৌসুমী!


ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি – ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা মৌসুমী গত বছরের অক্টোবরে আমেরিকা গিয়েছেন। এর আগে যতবারই গিয়েছেন এক মাসের মধ্যেই ফিরে এসেছেন। কিন্তু এবার প্রায় চার মাস হয়ে গেল, এখনো ফেরার নাম নেই। এ কারণে গুঞ্জন উঠেছে, তবে কি মৌসুমীও আমেরিকায় স্থায়ী বসবাসের জন্য গ্রিনকার্ডের অপেক্ষায় আছেন। যদিও গ্রিনকার্ডের জন্য আবেদন করেছেন কিনা, এ বিষয়ে তিনি বা তার পরিবারের কেউ মুখ খোলেননি।

তবে মৌসুমী আমেরিকা থেকে একটি গণমাধ্যমকে জানান, ঠিক কবে নাগাদ দেশে ফিরবেন তা এখনো ‘সিদ্ধান্ত’ হয়নি। এ সিদ্ধান্তটা কী সেটাও স্পষ্ট করে বলেননি। আমেরিকায় তিনি তার মা, বোন ও দুই সন্তান ফারদিন ফাইজাহর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। এর ফাঁকে নানা ধরনের শোতেও অংশগ্রহণ করছেন।

এদিকে দেশে তার স্বামী অভিনেতা ওমর সানী একাই অবস্থান করছেন। সানী রেস্টুরেন্ট ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত আছেন। এদিকে কিছুদিন আগে সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে মৌসুমী অভিনীত সিনেমা ‘সোনার চর’। সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন জাহিদ হোসেন। সিনেমাটির প্রযোজকও অপেক্ষায় আছেন মৌসুমীর। তিনি দেশে ফিরলেই সিনেমাটি মুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। মৌসুমীকে নিয়েই এর মুক্তির প্রচারণা করতে চান প্রযোজক।

সিনেমা প্রসঙ্গে মৌসুমী বলেন, ১৯৭৫-এর পরবর্তী সময়ের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি। আমি এর আগে জাহিদ হোসেন ভাইয়ের নির্দেশনায় মাতৃত্ব নামক একটি সিনেমায় অভিনয় করেছিলাম। বলা যেতে পারে সেটি ছিল আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম আলোচিত একটি সিনেমা। সোনার চর সিনেমাটিও পরম যত্নে নির্মাণ করার চেষ্টা করেছেন। আমি আমার চরিত্রটি যথাযথভাবে ফুটিয়ে তোলার সর্বাত্মক চেষ্টা করেছি।

প্রসঙ্গত, মৌসুমী অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত দুটি সিনেমা হচ্ছে আশুতোষ সুজনের ‘দেশান্তর’ ও মিজায় সাখাওয়াত হোসেন পরিচালিত ‘ভাঙ্গন’। আমেরিকা যাওয়ার আগে সর্বশেষ তিনি একটি তেলের বিজ্ঞাপনেও মডেল হিসাবে কাজ করেন।

আইএ/ ২৬ জানুয়ারি ২০২৪





আরো খবর: