শিরোনাম ::
রাইসির মরদেহ তেহরানে, বৃহস্পতিবার মাশহাদে দাফন ঈদগাঁও উপজেলায় সহিংসতার মধ্য দিয়ে নির্বাচন সম্পন্ন : তালেব চেয়ারম্যান নির্বাচিত মাদক ও স্বর্ণ চোরাচালানের গডফাদার সাইফুল ধরাছোঁয়ার বাইরে! শাহরুখের চরম আপত্তি, ইচ্ছে থাকলেও এই কাজ করতে পারেন না গৌরী আইসিসিতে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন চকরিয়ায় সাবেক এমপি জাফরকে হারিয়ে সাঈদি পুনরায় উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত মোদি হয়ে পর্দায় আসছেন ‘কাটাপ্পা’ কক্সবাজার বেড়ানোর নামে যাত্রী বেশে বাসে ইয়াবা বহন মহেশখালীতে টমটম কেড়ে নিলো শিশু আইজা মণির প্রাণ উপজেলা নির্বাচনেও হারলেন চকরিয়ার সাবেক এমপি জাফর
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..  

অনিয়মের অভিযোগে ৩ এসআইসহ চারজনকে একযোগে বদলি

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শনিবার, ১১ মে, ২০২৪

পেশাগত দায়িত্বপালনকালে অনিয়মের অভিযোগে কক্সবাজারের রামু থানার ৩ এসআইসহ চারজনকে একযোগে বদলি করা হয়েছে। তবে, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বলছে এটি নিয়মতান্ত্রিক বদলি।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মো. মাহফুজুল ইসলামের স্বাক্ষরিত এক আদেশে থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বদলি হওয়া পুলিশ সদস্যরা হলেন- এসআই আবুল কাওসার, মো. আল আমিন, মুহাম্মদ ইমরান উদ্দিন ও কনস্টেবল মো. মাহমুদ।

বদলির আদেশ অনুযায়ী, রামু থানার এসআই আবুল কাওসারকে পেকুয়া থানা, মুহাম্মদ ইমরান উদ্দিনকে সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ি, মো. আল আমিনকে কুতুবদিয়া ও কনস্টেবল মো. মাহমুদকে সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়িতে পদায়ন করা হয়েছে। আদেশটি অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে উল্লেখ রয়েছে।

আদেশটি চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজিসহ ৯ জনকে অনুলিপি পাঠানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজারের রামু থানার ওসি মোহাম্মদ আবু তাহের দেওয়ানের ছত্রছায়ায় এসআই কাওসার ও আল আমিনের নেতৃত্বে গড়ে উঠেছে ‘সিভিল টিম’। এই টিমের সব কিছুই দেখভাল করেন ওসির আরেক আস্থাভাজন এসআই মো. আল আমিন।

এ ছাড়া এই টিমে রয়েছে এসআই মুহাম্মদ ইমরান উদ্দিন, মো. আহসান হাবীব, পিপল দেব, রাকিব হোসেন, মো. তৌহিদুল ইসলাম, মো. মাহমুদ, মো. আবু বক্কর। তাদের ছত্রছায়ায় পুরো রামু উপজেলাজুড়ে চলছে নানা অপরাধ। এই সিভিল টিমের সহযোগিতায় রামুর বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে ইয়াবা, গরু, সিগারেট পাচার হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এমনকি রাতে মাটি পাচারেও সহযোগিতা করে আসছে এই সিভিল টিম।

এ টিমের বিরুদ্ধে ইয়াবাসহ লোকজন ধরে থানায় এনে ছেড়ে দেওয়া এবং জব্দকৃত ইয়াবা বিক্রির অভিযোগও রয়েছে। ইতিমধ্যে এই টিমের এসআই মো. আল আমিনের বিরুদ্ধে ইয়াবা সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ এনে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখায় কয়েকটি অভিযোগ জমা পড়েছে। এসব অনিয়ম নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদে বদলিকৃত ৩ এসআই ও এক কনস্টেবলসহ অনেকের নাম ছিল।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, রামু থানা থেকে বদলিকৃত ৩ এসআইসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে অভ্যন্তরীণ তদন্তও শুরু হয়েছে।

এ বিষয়ে রামু থানার ওসি আবু তাহের দেওয়ানের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, তারা নিয়মতান্ত্রিক বদলি হয়েছেন। অন্য অভিযোগের বিষয়গুলো জানা নেই। এ ধরনের অভিযোগ থাকলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরো খবর: