তারিখ: মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:

[ad_1]

ঢাকা, ১০ নভেম্বর- হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে শনিবার টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে আসা হাসান আলী নামের এক যাত্রীর লাগেজ থেকে একটি অত্যাধুনিক পিস্তল ও ১০০ রাউন্ড গুলি জব্দ করেছে ঢাকা কাস্টম হাউস কর্তৃপক্ষ। 

কর্মকর্তারা জানান, যশোরের চৌগাছা থানার সিংজুলি গ্রামের জহুর আলীর ছেলে তিনি। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় একটি অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। হাসান আলী এ অবৈধ অস্ত্র ও গুলি লাগেজে ভরে কীভাবে তুরস্কের ইস্তাম্বুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তা তল্লাশি পার হয়ে ঢাকার বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে, তা নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে।

এ ব্যাপারে সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান বলেন, কোনো যাত্রী বৈধ অস্ত্র বা গুলি এয়ারলাইন্সে বহন করতে চাইলে সংশ্নিষ্ট এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষের অনুমতি থাকতে হবে। এ ছাড়া যাত্রীদের নিরাপত্তার স্বার্থে এয়ারলাইন্সের পাইলটের কাছে অস্ত্র ও গুলি জমা দিতে হয়। কিন্তু যাত্রী হাসান আলী লাগেজে অস্ত্র ও গুলি নিয়ে কীভাবে টার্কিশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে উঠেছে, সে বিষয়ে ওই এয়ারলাইন্সের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংশ্নিষ্ট বিমানবন্দর কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকাল সাড়ে ৫টায় টার্কিশ এয়ারলাইন্সের টিকে-৭১২ একটি ফ্লাইট বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এ সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাস্টমস কর্মকর্তারা বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেলসহ বিভিন্ন তল্লাশি পয়েন্টে অবস্থান নেন।

এ ব্যাপারে ঢাকা কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার (প্রিভেনটিভ) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ইতালি থেকে ইস্তাম্বুল ট্রানজিট টার্কিশ এয়ারলাইন্সের যাত্রী হাসান আলী বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার পর তার গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় কর্মকর্তারা তাকে চ্যালেঞ্জ করেন। এ সময় তল্লাশি করে তার লাগেজ থেকে এসব অস্ত্র ও গুলি জব্দ করা হয়।

এ ব্যাপারে বিমানবন্দর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কায়কোবাদ কাজী জানান, যাত্রী হাসান আলীর লাগেজ থেকে অবৈধ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে একটি মামলা হয়েছে।

সূত্র : সমকাল
এন কে / ১০ নভেম্বর



[ad_2]

Share: