তারিখ: রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া::

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর কারণে সম্ভাব্য ক্ষতিসাধন এড়ানো ও জনদুর্ভোগ লাঘবে জনপ্রতিনিধি, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির সকল সদস্য এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে মাঠে থাকতে হবে। প্রতিটি এলাকায় যাতে বড়ধরণের কোন ক্ষতিসাধন না হয় সেইজন্য সজাগ থাকতে হবে। ঘূর্নিঝড়ের সম্ভাব্য ঘটনার প্রেক্ষিতে করূনীয় নির্ধারণে শুক্রবার রাতে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি সভায় চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান এসব নির্দেশনা দিয়েছেন।
অনুষ্ঠিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি সভায় বক্তব্য দিয়েছেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার ভুমি মো.তানভীর হোসেন, উপজেলা রেড ক্রিসেন্ট কর্মকর্তা মনির চৌধুরী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো.মাসুদুর রহমান।
অনুষ্ঠিত সভায় চকরিয়া উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় নিম্নোক্ত পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ইউএনও শিবলী নোমান। তিনি বলেন, উপজেলার সকল সাইক্লোন সেন্টার সমূহ খোলা রাখার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান ও শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। পাশাপাশি পর্যাপ্ত শুকনা খাবার, নগদ অর্থসাহায্য ও চাল এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড এ চেয়ারম্যান ও মেম্বারের নেতৃত্বে সিপিপি ভলান্টিয়ার সহ অন্যান্য দের নিয়ে ভলান্টিয়ার ও রেস্কিউ টিম গঠনের জন্য ইউপি চেয়ারম্যানকে ও সহকারী পরিচালক সিপিপিকে, চকরিয়াকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।
তিনি বলেন, দুর্যোগকালীন সময়ে জনসাধারণ যাতে নিরাপদে আশ্রয়ে যেতে পারে সেইজন্য প্রতিটি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে কমিউনিটি ক্লিনিক, উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, এম্বুলেন্স, ইমার্জেন্সি মেডিকেল টিম, জরুরি ওষুধ ও পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
উপজেলা প্রশাসন দুর্যোগকালীন সময়ে সকল বিষয়ে জরুরী যোগাযোগের জন্য কন্ট্রোল রুম চালু করেছেন। সংশ্লিষ্ট সবাইকে ০১৭২০২৪০৪৮১ নাম্বার মোবাইলে চকরিয়া উপজেলা কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করেছেন ইউএনও শিবলী নোমান। ##

Share:
error: কপি করা নিষেধ !!