তারিখ: রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:

চকরিয়া অফিস::

কক্সবাজারের চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ হোস্টেলে তুচ্ছ বিষয়ে দ্বন্দ্বের জেরে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। ওইসময় সহপাঠিদের পিটুনিতে দুই বন্ধু আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, কোরক বিদ্যাপীঠের নবম শ্রেণীর ছাত্র নাজমুল হোসেন জয় (১৫) ও মাহমুদ হোসেন কালবি (১৫)। শুক্রবার দুপুরে চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক হিরু বড়–য়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। হামলাকারী ও আহতরা সবাই নবম শ্রেণীর ছাত্র। এদিকে ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন প্রধান শিক্ষক।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার রাতে নবম শ্রেণীর ছাত্র দুই বন্ধু বন্ধু জয় ও কালবি হোস্টেলে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত ১২টার দিকে হেলাল উদ্দিন ও মো. শোয়াইব মিলে ঘুমন্ত অবস্থায় জয় ও কালবিকে গাছের বাটাম দিয়ে পিঠিয়ে গুরুতর আহত করে রাতের আধাঁরে পালিয়ে যায়। পরে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও সচেতন মহল জানিয়েছেন, হোস্টেল সুপার এইচএম নেছারুল হক দায়িত্ব পালন করলেও রাতে হোস্টেলে না থাকার কারণে বারবার হোস্টেলে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে এ ধরনের ঘটনা সংঘঠিত হচ্ছে। অভিযোগ উঠেছে, বর্তমানে অনেকটা অরক্ষিত রয়েছে ছাত্রীদের হোস্টেলও। অপরদিকে হোস্টেল থেকে সুপার নেছারুল হক ১৭ মাসে অবৈধ পন্থায় সাড়ে ৮ লাখ টাকা আত্মসাত করার ঘটনায় সর্বমহলে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। এজন্য জেলার অন্যতম সেরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি সুনাম ও ঐহিত্য রক্ষায় অনিয়মের ঘটনায় অভিযুক্ত হোস্টেল সুপার নেছারুল হককে অবিলম্বে অপসারণসহ প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়ার দাবী জানিয়েছেন।

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক মো.নুরুল আখের স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, হামলাকারী দুই ছাত্র ঘটনার পর থেকে পলাতক থাকায় কি কারনে হামলা করা হয়েছে জানা যায়নি। আহতের দাবী তাদের সাথে কারও বিরোধ নেই। তবে প্রাথমিক ভাবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই ছাত্রকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হাবিবুর রহমান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Share:
error: কপি করা নিষেধ !!