তারিখ: রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:

মোহাম্মদ শফি,টেকনাফ:

টেকনাফ বাহারছড়ার শামলাপুর গ্রামে অবস্থিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য ইউনিসেফ এর সহায়তায় নির্মিত ও কোডেক এনজিওর পরিচালনাধীন সূর্যমূখী কামিনী নামক দুইটি লার্নিং সেন্টার বা স্কুল পরিদর্শন করেছেন মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলিস এয়েলস ও বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার।

৭ই নভেম্বর বেলা ১১টা সময় তারা এই স্কুল বা লার্নিং সেন্টার গুলো পরিদর্শনে আসেন। এসময় তাদের সাথে ছিলেন শামলাপুর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ (সিআইসি) তুলক চক্রবর্তী।

এদিকে মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও রাষ্ট্রদূত লার্নিং সেন্টারে অধ্যায়নরত রোহিঙ্গা শিশুদের কাছে জানতে চান তোমাদের কোন সাবজেক্ট বেশি ভাল লাগে? তখন রোহিঙ্গা শিশুরা কেউ ইংরেজী, কেউ গণিত, কেউ বা বার্মিজ ভাষার সাবজেক্ট বেশি ভাল লাগে বলে তাদের বলেন। আবার তোমরা বড় হয়ে ভবিষ্যতে কি হতে চাও এমন প্রশ্নে রোহিঙ্গা শিশুরা কেউ ডাক্তার, কেউ শিক্ষক, কেউ বা সমাজ সেবক হতে চান বলে আগত অতিথিদের জানান।

এ সময় রোহিঙ্গা শিশুদের স্বপ্নের কথা শুনে অতিথিরা উচ্ছাস প্রকাশ করেন এবং তারা বেশ কিছুক্ষণ সময় রোহিঙ্গা শিশুদের সাথে আড্ডায় মেতে উঠেন। পরে বেলা সাড়ে এগারটা সময় মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও মার্কিন রাষ্ট্রদূত শামলাপুর ত্যাগ করেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ইউনিসেফ ও কোডেক এনজিওর বিভিন্ন কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যবৃন্দ।

Share:
error: কপি করা নিষেধ !!