রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

১৫ বছর বয়সী ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ইমাম গ্রেপ্তার

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: এপ্রিল ১৩, ২০১৯ ৯:৫২ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: এপ্রিল ১৩, ২০১৯ ৯:৫২ অপরাহ্ণ

কুমিল্লায় ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ইমাম গ্রেপ্তার

১৫ বছর বয়সী এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাহফুজুর রহমান (২২) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মাহফুজুর রহমান উপজেলার ছোটশালঘর দক্ষিণ পাড়া বাইতুল ফালাহ্ মসজিদের ইমাম।
গেল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার ছোট শালঘর দক্ষিণ পাড়ার বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদে ইমামের থাকার রুমে এ ঘটনাটি ঘটে। পরে ঘটনা জানাজানির পর শনিবার বেলা ১১টার দিকে তাকে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে ওই ইমামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন ছাত্রীর বাবা। এ ঘটনায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ।

অভিযুক্ত ইমাম দেবিদ্বার উপজেলার ভিরাল্লা গ্রামের (আবুল বাড়ির) মো. সাইদুল ইসলাম ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছোটশালঘর দক্ষিণ পাড়া মসজিদের ইমাম মাহফুজুর রহমান মসজিদের পাশে তার শোবার ঘরে শুক্রবার সকাল ১০টার সময় জোরপূর্বক ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এমন খবর পেয়ে দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল আনোয়ারের নেতৃত্বে পুলিশ ফোর্স ধর্ষককে আটক করে ধর্ষিত ছাত্রীকে উদ্ধার করে দ্রুত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে পাঠায়।

দেবিদ্বার থানার ওসি মো. জহিরুল আনোয়ার জানান, ওই কিশোরী বর্তমানে চিকিৎসাধীন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ইমাম মাহফুজুর রহমান ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

ওই কিশোরীর বাবা বলেন, তার মেয়ে তাদের পুরনো বাড়িতে যাওয়া-আসা করতো। পথে প্রায় সময়ই ওই ইমাম তাকে উত্ত্যক্ত করতো এবং কুপ্রস্তাব দিত। ঘটনার দিন সকালে বাড়ি যাওয়ার পথে ওই ইমাম রাস্তা থেকে ডেকে নিজের রুমে নিয়ে যায়।

দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা জানান, মেয়েটিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় এখানে আনারা পর তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::