তারিখ: বুধবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, ১০ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share:

চলমান বিপিএলের অষ্টম ম্যাচে নেমেছিল খুলনা টাইটান্স এবং রাজশাহী কিংস। দুটি দলই নিজেদের প্রথম ম্যাচে হেরেছিল। এই ম্যাচেও হারলো মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্স। মেহেদি হাসান মিরাজের নেতৃত্বে খেলতে নামা রাজশাহী কিংস ৭ উইকেটে জিতেছে। ব্যাটিংয়ে নেমে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া মিরাজ ফিফটি তুলে নেন।

টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে তোলে ১১৭ রান। জবাবে, রাজশাহী কিংস ১৮.৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে।

ওপেনিংয়ে নামা খুলনার দুই ওপেনার পল স্টার্লিং এবং জুনায়েদ সিদ্দিকী ৪.৫ ওভারে তুলে নেন ৪০ রান। আইরিশ ওপেনার স্টার্লিং ১৪ বলে ১৬ আর জুনায়েদ ২৮ বলে চারটি চারের সাহায্যে করেন ২৩ রান। মাঝে জহুরুল ইসলাম ১ এবং দলপতি মাহমুদউল্লাহ ১১ রান করে বিদায় নেন। রানের চাকা ঘোরান ডেভিড মালান। তিনি ১৮ বলে একটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ২২ রান। আরিফুল হক ১৬ বলে ১২ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ডেভিড উইসি ১৪ বলে করেন ১৪ রান। তাইজুল ইসলাম ৮ রানে অপরাজিত থাকেন।

রাজশাহীর কায়েস আহমেদ ৪ ওভারে ২৪ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট। মোস্তাফিজ ৪ ওভারে ১৮ রানের বিনিময়ে নেন দুটি উইকেট। আরাফাত সানি ৩ ওভারে ১৯ রান খরচায় পান একটি উইকেট। ইসুরু উদানা ৪ ওভারে ১৫ রান খরচায় তুলে নেন তিনটি উইকেট। সৌম্য সরকার ১ ওভারে ৬ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট। আর দলপতি মেহেদি হাসান মিরাজ ৩ ওভারে ১৯ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি। মোহাম্মদ হাফিজ ১ ওভার বল করে ১৩ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি।

১১৮ রানের সহজ টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে রাজশাহীর পাকিস্তানি ওপেনার মোহাম্মদ হাফিজ ৫ বলে ৬ রান করে বিদায় নেন। দলীয় ১১ রানের মাথায় প্রথম উইকেট পড়ার পর জুটি গড়েন মুমিনুল হক এবং দলপতি মেহেদি হাসান মিরাজ। স্কোরবোর্ডে তারা ৮৯ রান যোগ করেন।

১৫তম ওভারে বিদায় নেন মুমিনুল হক। বিদায়ের আগে ৪৩ বলে চারটি চারের সাহায্যে করেন ৪৪ রান। মেহেদি হাসান মিরাজ ১৮তম ওভারের প্রথম বলে আউট হন। তখন জয়ের জন্য রাজশাহী দরকার ছিল মাত্র ৯ রান। ৪৫ বলে ছয়টি চার আর একটি ছক্কায় মিরাজ করেন ৫১ রান। সৌম্য সরকার ১৭ বলে ১১ রান করে অপরাজিত থাকেন। লউরি ইভান্স ১ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

তাইজুল ইসলাম, পল স্টার্লিং, জহির খান একটি করে উইকেট নেন। শরিফুল, সুবাশিষ, ডেভিড উইসি, মাহমুদউল্লাহ, ডেভিড মালান কোনো উইকেট পাননি।

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::