শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৩৫ অপরাহ্ন

স্বামীকে হত্যা করা হল, যোগাযোগ করল না সরকার: নিহত একরামুলের স্ত্রী

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: জুন ২, ২০১৮ ১০:২৮ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: জুন ২, ২০১৮ ১০:২৮ অপরাহ্ণ

নিহত একরামুলের স্ত্রী আয়শা বেগম বলেন, আমার স্বামীকে ষড়যন্ত্র করে হত্যা করা হল। যারা চাই না মাদক বন্ধ হোক, তারাই এটি করেছে। আমি কার কাছে যাবো যেখানে আমার স্বামী আওয়ামী লীগ করে তাকে এভাবে হত্যা করা হল। তাহলে আমি কিভাবে মামলা করব,বিচার চাইব। এতে আমার ও সন্তানদের নিরাপত্তা কি?

ফারজানা রুপার সঞ্চালনায় একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত অনুষ্ঠান একাত্তর জার্নালে তিনি একথা বলেন। এছাড়া ছিলেন ডিবিসির সম্পাদক জায়েদুল আহসান পিন্টু, ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত।

নিহত একরামুল হকের স্ত্রী আয়শা বেগম বলেন, আমার স্বামী নিরপরাধ ছিলেন। কোন মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলেন না। তারপরও তাকে র‌্যাবের হাতে নিহত হতে হলো। আমার স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমি কাকে বিশ্বাস করব কার কাছে এই কথা বলব। আমার পরিবারের নিরাপত্তা কি? আমি কিভাবে বেঁচে থাকব। কেনো এভাবে আমার স্বামীকে হত্যা করা হল । আমার স্বামীর হত্যার বিচার চাই।

তিনি আরও বলেন, সরকারিভাবে কেউ আমার সাথে কোন যোগাযোগ করেনি। আমার কষ্ট হচ্ছে কেনো আমার স্বামী কোন কিছু না করেও হত্যার স্বীকার হলো। এভাবে কেনো আমার স্বামীর মৃত্যু হল। তার কাছে তিনটা মোবাইল, হাতঘড়ি, মানিব্যাগ ছিল। র‌্যাব একটা মোবাইল উল্লেখ করেছে। আর অন্য কিছু আমায় দেয়নি।

একরামুল হকের স্ত্রী কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমি চাই ইয়াবা বন্ধ হোক, র‌্যাবের কাজ চলুক। র‌্যাব না জেনে কেনো আমার স্বামীকে এভাবে হত্যা করলো। আমার স্বামী এর সাথে জড়িত না বলার পরেও কেনো তাকে র‌্যাব হত্যা করলো। আমার সন্দেহ হচ্ছে যারা দোষী মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত তারা বেঁচে যেতেই ষড়যন্ত্র করে আমার নিরপরাধ স্বামীকে হত্যা করেছে। সরকার বলছে আমি মামলা বা কোন কিছু করি নাই। কিভাবে করব যেখানে আমার স্বামী আওয়ামী লীগ করে তাকেই বিনা দোষে হত্যা করা হলো। আমি বিচার চাইব, মামলা করব, কার কাছে যাব। আমার ও মেয়েদের নিরাপত্তা কি? আমার নিরাপত্তার দায়িত্ব কে নিবে? আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার বিচার চাই কেনো কোন কিছুর সাথে জড়িত না থাকার পরেও তাকে এভাবে হত্যা করা হলো।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::