শিরোনাম :
বাঁধ মেরামতে স্বস্তি পাচ্ছে কুতুবদিয়ার মানুষ কক্সবাজারে স্মার্ট ফোনের বাজার শুল্কফাঁকিতে আনা অবৈধ মোবাইলের দখলে কক্সবাজারে অর্ধশতাধিক সেবা প্রার্থীকে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট বিতরণ করলেন পুলিশ সুপার রামু থানা পরিদর্শন ও মাস্ক বিতরণ করলেন জেলা পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ প্রতিরক্ষা বেড়িবাঁধ পরিদর্শনে পানি সম্পদ সংসদীয় কমিটির সদস্য এমপি শাওন বিবিসি ১০০ নারীর তালিকায় রামুর মেয়ে রিমা সুলতানা রিমু কক্সবাজারে ৫ রেস্টুরেন্টেকে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা কক্সবাজারে নারীর পেটে মিলল ৩ হাজার ইয়াবা : ডিএনসি‘র পৃথক অভিযানে আটক-৪ টেকনাফে ২০হাজার ইয়াবা উদ্ধার করল বিজিবি পেকুয়ায় ব্যক্তিগত অর্থায়নে কালভার্ট ও সড়ক সংস্কার
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

সুশান্ত সিং রাজপুতকে শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে, বিস্ফোরক দাবি বিকাশ সিং-এর

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ ৭:৩৪ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ ৭:৩৪ অপরাহ্ণ

[ad_1]

মুম্বাই, ২৫ সেপ্টেম্বর- রহস্য খোলা তো দূর। যত দিন গিয়েছে ততই যেন ক্রমে জটিল হয়েছে ঠিক কীভাবে মৃত্যু হয়েছে বলিউডের অন্যতম প্রতিভাবান অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের। এবার সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী বিকাশ সিং দাবি করলেন, সুশান্ত আত্মঘাতী হননি, তাঁকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে।

বিকাশ সিং-এর দাবি, তদন্তের সঙ্গে যুক্ত এইমস-এর এক চিকিৎসক কিছুদিন আগে তাঁকে সুশান্তের দেহের ছবি দেখে জানিয়েছিলেন, ছবিগুলি ২০০ শতাংশ ইঙ্গিত দিচ্ছে যে আত্মহত্যা না শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে।

আইনজীবী টুইট করে এই দাবি করেছেন। এই টুইটের পরেই ফের শোরগোল শুরু হয়েছে। টুইটে বিকাশ সিং লেখেন, কেন সিবিআই সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করছে তা ভেবে ধৈর্য হারাচ্ছেন তিনি। তাঁর মতে, এই মামলাকে এখনই খুনের মামলায় পরিবর্তিত করা উচিত।

আরও পড়ুন: চুমু খেতেও ভয় পাচ্ছেন সালমান

উল্লেখ্য, ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হওয়ার পর প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলে অনুমান করা হলেও তাঁর পরিবারের তরফে দাবি করা হয়, খুন হয়েছেন সুশান্ত। এনিয়ে মামলাও দায়ের করা হয়।

তদন্তে জানা গিয়েছে, মৃত্যুর দিন সকাল সাড়ে ৬ টায় ঘুম থেকে ওঠেন সুশান্ত। বাইরে আসেন, সবার সঙ্গে কথাবার্তাও বলেন। এরপর সাড়ে ৯ টা নাগাদ জুসের গ্লাস হাতে নিয়ে নিজের ঘরে যান সুশান্ত। তখনই তাঁকে শেষ দেখেন পরিচারক।

এরপর সুশান্ত নিজের ঘরের দরজা বন্ধ করে দেন। পরিচারক কী খাবেন জিজ্ঞেস করতে আসেন, কিন্তু সুশান্ত কোনও উত্তর দেননি। দরজাও খোলেননি। এরপর সাড়ে ১২ টা নাগাদ ফের পরিচারক খাবারের কথা জিজ্ঞেস করতে আসেন। এবারও কোনও উত্তর না পেয়ে দরজা ধাক্কা দিতে শুরু করেন। দরজা না খোলার, কিছুক্ষণ বাদে তাঁর বোনলে ফোন করা হয়। তাঁর বোন থাকেন গুরগাঁওতে। ৪০ মিনিটের মধ্যে বান্দ্রা পৌঁছে যান তিনি।

তিনিও অনেক ডাকাডাকি করেন, কিন্তু কোনও সাড়া পাননি। এরপর মেকানিক ডাকা হয় দরজা খোলার জন্য। দরজা খুলতেই তাঁর ঝুলন্তু দেহ দেখা যায়।

এন এইচ, ২৫ সেপ্টেম্বর



[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::