তারিখ: মঙ্গলবার, ১৯শে মার্চ, ২০১৯ ইং, ৫ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

Share:

ভারতীয় জি বাংলা চ্যানেলের সংগীত বিষয়ক জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘সা রে গা মা পা’ থেকে বাদ পড়লেন বাংলাদেশের মেয়ে অবন্তি সিঁথি। গতকাল রোববার, ২৪ ফেব্রুয়ারি রাতে প্রকাশ হওয়া পর্বে তিনি প্রয়াত বারী সিদ্দীকীর ‘আমি একটা জিন্দা লাশ’ গানটি গেয়ে শোনান।

গতকাল ছিলো মুলত তিন প্রতিযোগীর জন্য বাঁচা মরার লড়াই। সেখানে রাহুল ও স্নেহা টিকে গেলেও বাদ পড়ে গেলেন অবন্তি। বাদ পড়া প্রতিযোগী হিসেবে তার নামটি ঘোষণার পর আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন তিনি।

নিজেকে শান্ত রাখার চেষ্টা করছিলেন। তবে চোখ ছিলো ছলছল। কণ্ঠও ছিলো ভারী। নিজের শেষ বক্তব্য দিতে গিয়ে অবন্তি ‘সারেগামাপা’-কে ধন্যবাদ জানান চমৎকার এই আয়োজনে তাকে বাছাই করার জন্য। তিনি বলেন, ‘এই মঞ্চটাকে অনেক মিস করবো। এখানে অনেক অনেক ভালো কিছু বন্ধু পেয়েছি। সবাইকে মিস করবো। সবার সঙ্গে থেকে অনেক কিছু শিখেছি ও জেনেছি।’

আরো পড়ুন ::  উখিয়ায় যত্রতত্র লাইসেন্স বিহীন ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার (আইএসপি) ব্যবসার হিড়িক

সুযোগ পেলেই তিনি কলকাতা ও সারেগামাপা অনুষ্ঠানে যেতে চান বলেও জানান। তার বিদায়ে গতকালকের পর্বটি শেষ হয় বিষাদের সুর বাজিয়ে। আবেগপ্রবণ ছিলেন সকল প্রতিযোগী ও বিচারকরা। আবেগী ছিলেন উপস্থাপক যিশু সেনগুপ্তও।

সারেগামাপা-তে ২০১৮ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর কিশোর কুমারের ‘আকাশ কেন ডাকে’ গানের সঙ্গে শিষ ও চায়ের কাপ বাজিয়ে চমক দেখান অবন্তি। সেই গান ভাইরাল হয়ে ঘুরেছে দুই বাংলার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

তার পরিবেশনা দেখে উপস্থিত বিচারক শ্রীকান্ত আচার্য, শান্তনু মৈত্র, কৌশিকী চক্রবর্তী, মোনালী ঠাকুর, পণ্ডিত তন্ময় বোস, রূপঙ্কর বাগচী, জয় সরকার ও শুভমিতার মতো নন্দিত শিল্পী-সুরকাররা আসন ছেড়ে উঠে দাঁড়ান। করতালি আর প্রশংসায় ভাসিয়ে দেন বাংলাদেশের অবন্তীকে।

এমনি করে আরও বহু পর্ব মাতিয়েছেন অবন্তি। সেই সুখ স্মৃতি নিয়েই ফিরে আসবেন তিনি। তবে জি বাংলার এই অনুষ্ঠানটি দিয়ে অবন্তি জয় করে নিলেন দুই বাংলার সংগীত পিপাসুদের মন।

আরো পড়ুন ::  প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে ‘অন্তঃসত্ত্বা’ তরুণী

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::