শিরোনাম :
উৎসবমুখর পরিবেশে উখিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা স্বাস্থ্যবিধি না মানলে প্রয়োজনে কারাদন্ড দেয়া হবে-জেলা প্রশাসক চকরিয়ায় অবৈধ বসতি গুঁড়িয়ে দিয়ে এক একর সংরক্ষিত বনভূমি উদ্ধার কক্সবাজার সদরের ইসলামাবাদে কারের ধাক্কায় টমটম চালক নিহত পেকুয়ায় রাতে নির্মিত ৩টি অবৈধ স্থাপনা দিনে উচ্ছেদ লকডাউন আর না, সচেতন হোন-সিনিয়র সচিব মো. হেলালুদ্দিন পেকুয়ায় মাস্ক ব্যবহার না করায় ৯ জনকে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা কভিড-১৯ প্রণোদনা নিয়ে কক্সবাজারে ব্যাংক কর্মকর্তাদের সাথে সংলাপ শিশু ধর্ষণের দায়ে কুতুবদিয়ার এক ব্যক্তি যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদন্ড দাবি আদায়ে কর্মবিরতিতে কক্সবাজারের স্বাস্থ্য সহকারীরা
শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৮:২৮ অপরাহ্ন

শিশুদের প্রিয় অনুষ্ঠান সিসিমপুর আসছে আগামীকাল বৃহস্পতিবার

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ

[ad_1]

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর- শিশুদের প্রিয় টেলিভিশন অনুষ্ঠান সিসিমপুর আসছে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) থেকে সপ্তাহের সাতদিনই দেখা যাবে বাংলাদেশ টেলিভিশনে। শুক্র এবং শনিবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটে এবং রবি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন বিকাল ৫টা ১০ মিনিটে প্রচারিত হবে শিশুদের জনপ্রিয় এই অনুষ্ঠান। 

প্রতিদিনই থাকবে নতুন নতুন পর্ব। যা আগে শুধু একটি পর্ব সপ্তাহে চারদিন দেখানো হতো। ১৫ বছর আগে সিসিমপুরের প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে বিটিভিতে প্রচারিত হয়ে আসছে সিসিমপুর। বিটিভি’র মাধ্যমে দেশের সকল শিশু সিসিমপুর দেখার সুযোগ পায়। 

এ প্রসঙ্গে সিসিমপুরের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, সিসিমপুর প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ের শিশুদের শিক্ষা ও বিকাশে একটি অনন্য উদ্যোগ-যার প্রতিটি অংশ গবেষণালব্ধ এবং শিশুদের মনস্তাত্তিক দিককে মাথায় রেখে নির্মিত। প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিশুরাসহ দেশের সকল শিশু যাতে প্রতিদিন সিসিমপুর দেখার সুযোগ পায় সে লক্ষে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং সিসিমপুরের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সিসেমি ওয়ার্কশপের যৌথ এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হতে যাচ্ছে আগামী ১লা অক্টোবর বৃহস্পতিবার থেকে।  

তিনি আরও বলেন, আমরা সব সময়ই চাই সিসিমপুরের এই প্রয়াস পৌঁছে যাক বাংলাদেশের সকল শিশুর কাছে। বিটিভির মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছানো সম্ভব। শুরু থেকে সিসিমপুরের পাশে রয়েছে বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়। সপ্তাহের সাতদিনই প্রচারের সিদ্ধান্ত তারই ধারাবাহিকতা।   

আরও পড়ুন: ধর্ষণের অভিযোগে থানায় ডাক পড়ল অনুরাগের

বাংলাদেশে সিসিমপুরের যাত্রা ও নির্মাণ সম্ভব হচ্ছে ইউএসএআইডি’র আর্থিক সহায়তায় এবং বাংলাদেশ টেলিভিশনে সিসিমপুর সম্প্রচারিত হয় মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আর্থিক সহায়তায়। বাংলাদেশের শিশুদের কল্যাণে এই যৌথ প্রয়াস চলমান থাকবে বলে আশা করে সিসিমপুর কর্তৃপক্ষ।

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন
আডি/ ৩০ সেপ্টেম্বর



[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::