শিরোনাম ::
উখিয়ায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত সামাজিক সংহতি ও শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত উখিয়ার রাজা পালং মাদ্রসা দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে নানা অভিযোগ, তদন্ত কমিটি গঠিত মুক্তি কক্সবাজারের উদ্যোগে উখিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফ্রেন্ডশিপের প্রশিক্ষণে চ্যাম্পিয়ন ভালুকিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের নারী ফুটবল টিমকে সংবর্ধনা উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪২ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

শাহীনের দখল থেকে ২৫ কোটি টাকা মূল্যের জমি দখলমুক্ত!

ডেস্ক নিউজ
আপডেট: মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারি, ২০২২

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার আড়িয়াবো এলাকায় ২৫ কোটি টাকার প্রায় ১২৬ শতাংশ সরকারি জমি দখলমুক্ত করেছে তারাবো পৌরসভা।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে অর্ধশতাধিক স্থাপনা উচ্ছেদ করে এই জমি দখলমুক্ত করা হয়।

তারাবো পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, ২০০৪ সাল থেকে আড়িয়াবো গ্রামের বাসিন্দা শাহীন ভূঁইয়া স্বপন অবৈধভাবে সড়ক ও জনপদ বিভাগ এবং খাস খতিয়ানের প্রায় ১২৬ শতাংশ জমি দখলে নেন। নিজ নামে অর্ধশত দোকানঘর নির্মাণ করে ব্যবসায়ীদের কাছে ভাড়া ও পজিশন বিক্রি করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে তিনি এ জমি ভোগদখল করে আসছিলেন।

অভিযানে উচ্ছেদ হওয়া দোকান মালিক জাহিদ হাসান জানান, শাহীনের কাছ থেকে পজিশন কিনে তিনি দোকানঘর তোলেন। জমিটি অবৈধভাবে দখল করা কিনা জানেন না জাহিদ।

একইভাবে অবৈধ দখলের বিষয়টি না জেনেই শাহীনের কাছ থেকে জমি কিনে বসতঘর নির্মাণ করে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তাজউদ্দিন ও শাহজাহান মিয়া।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে শাহীন ভূঁইয়া স্বপন বলেন, ‘অন্যায়ভাবে আমার স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।’

তারাবো পৌরসভার নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘গত কয়েক বছরে বহুবার নোটিশ দিয়েও তাদের উচ্ছেদ করা যায়নি। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক, রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছে।’

উচ্ছেদ অভিযান চলাকালে তারাবো পৌরসভার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, প্রধান প্রকৌশলী জেড এম আনোয়ার হোসেন, সচিব তাইজুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী জাকির হোসেনসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
বাংলা ট্রিবিউন


আরো খবর: