মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

শহরের সিএন্ডবি কলোনীর মাদক আখড়ায় হচ্ছে কলেজ

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: এপ্রিল ১০, ২০১৯ ৬:৪৬ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: এপ্রিল ১০, ২০১৯ ৬:৪৬ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের এবারের মহৎ উদ্যোগ সাগর পাড়ের এ শহরটিতে একটি ভাল মানের কলেজ স্থাপন করা। তিনি চান একটি উন্নত মানের কলেজ এ শহরটিকে আলোকিত করতে উন্নত ভুমিকা রাখুক। জমিও মিলেছে কলেজ স্থাপনের জন্য। যত দ্রুত কলেজটি এগিয়ে নিয়ে যাবে ততই মাদক থেকেও রেহাই পাবে অনেক যুবক। তাই আর বিলম্ব নয়। আগামী সপ্তাহেই কলেজটির যাত্রা শুরু করা হবে-এমনই সিদ্ধান্ত হয়েছে গতকাল বুধবার। এর আগে জেলা প্রশাসক অরুণোদয় নামে একটি অটিজম স্কুল কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন সার্কিট হাউজ সংলগ্ন এলাকায় ।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের শহীদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে গতকাল শহরের এরকম একটি কাংখিত শিক্ষা প্রতিষ্টান স্থাপনের সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন মাত্র একদিন আগেই শিক্ষাকে এগিয়ে নেয়ার তাগিদ নিয়ে এরকম একটি সভা ডেকেছিলেন। সভার সভাপতির সুচনা বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন-‘আমি এ জেলায় আজীবনের জন্য আসিনি। আমি সরকারি কর্মচারি। সদাশয় সরকার যখন আমাকে যেখানে বদলি করবে সেখানেই আমার দায়িত্ব নিতে হবে।’ জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন অনেকটা আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, আমি এ জেলার একজন জেলা প্রশাসক হিসাবে নিজেই লজ্জিত হচ্ছি কেনইবা আমার জেলায় শিক্ষিতের হার কম হবে। আমি কিছুতেই শান্তি পাচ্ছি না। তিনি বলেন, শহরের মধ্যেই একটি জমির সন্ধান যখন মিলেছে আর দেরি নয়-এখানেই কলেজটি স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিতেই এসভার আহ্বান জানানো হয়েছে। বর্তমানে ওই স্থানটি জেলা শহরের মস্তবড় একটি মাদক কারখানা হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে।
শহরের বায়তুশ শরফ একাডেমী সংলগ্ন বইল্যা পাড়া সিএন্ডবি কলোনীর পরিত্যক্ত ভবনটির ৬৯ শতক সরকারি জমিতেই কলেজটি স্থাপন করা হবে। জেলা প্রশাসকের এরকম ইচ্ছার কথা শুনে কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শাহজাহান ও মোহাম্মদ আলী, জাসদ জেলা সভাপতি নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি আবু তাহের, কক্সবাজার প্রেস ক্লাব সভাপতি মাহবুবুর রহমান, সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, ইঞ্জিনিয়ার কানন পাল, এডভোকেট রনজিত দাশ, আবু মোরশেদ চৌধুরী প্রমুখ জেলা প্রশাসককে ধন্যবাদ জানিয়ে অবিলম্বে কলেজের কাজ শুরু করার পরামর্শ দেন।
সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষা আশরাফ হোসেন ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট শাহজাহান আলী উপস্থিত ছিলেন।কলেজটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নামে নামকরণ করতেও জেলা প্রশাসকের প্রতি দাবি জানানো হয়। আগামী ২০ এপ্রিল মন্ত্রিপরিষদ সচিব কলেজটির ভিত্তি স্থাপন করার কথা রয়েছে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::