শিরোনাম :
সকল ষড়যন্ত্রের জাল ভেদ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাবেই: শামীম চুমু খেতেও ভয় পাচ্ছেন সালমান সুয়ারেজের বিদায়ে মেসির আবেগঘন বার্তা রিজার্ভ চুরির মামলার নোটিশ পেয়েছে সেই ক্যাসিনো পাকিস্তানেরগোয়েন্দা সংস্থার সাথে বিএনপির সম্পর্ক অনেক পুরনো: তথ্যমন্ত্রী এবার লন্ডনে থানার ভেতর পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে পাসপোর্ট দিতে বাংলাদেশকে অনুরোধ জানিয়েছে সৌদি আরব: পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক চেষ্টায় রেলওয়ে তার হারানো যৌবন ফিরে পেয়েছে : রেলমন্ত্রী বর্তমান যুগে উন্নয়নের প্রধান হাতিয়ার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষা: স্পিকার ইসরায়েল ইস্যুতে এবার ট্রাম্পকে এক হাত নিলেন সৌদি প্রিন্স
শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২৭ অপরাহ্ন

লোহাগাড়ায় পুলিশের অভিযানে আটক ২

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: জুলাই ১৪, ২০১৮ ২:২৭ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: জুলাই ১৪, ২০১৮ ২:২৭ পূর্বাহ্ণ

রায়হান সিকদার,লোহাগাড়াঃ
চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায় পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে ১ চাঁদাবাজ ও আরেক মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে লোহাগাড়া থানা পুলিশ। বিষয়টি থানার ওসি মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন। আটককৃতদের নাম হল মোহাম্মদ সোহেল(২৭)। সে বড়হাতিয়া ইউনিয়নের কুমিরাঘোনা চাকফিরানী দেওয়ানা পাড়া এলাকার মুহাম্মদ জামাল উদ্দিনে পুত্র এবং মোহাম্মদ রিয়াদ(২৫)। সে চুনতির কুমুদিয়া পাড়া এলাকার আবদুল জলিলের পুত্র।
থানা সুত্রে জানা গেছে,গত ১৩জুলাই রাত্রে লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম,পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুহাম্মদ আবদুল জলিল,সেকেন্ড অফিসার এসআই মুহাম্মদ আবদুল আউয়াল,এসআই আবদুল হকের নেতৃত্বে একটি পুলিশি টিম উপজেলার বড়হাতিয়ার কুমিরাঘোনা চাকফিরানী দেওয়ানা পাড়া এলাকা হতে চাঁদাবাজ সোহেলকে আটক করে এবং চুনতি মুন্সেফ বাজারে গরু চোর রিয়াদকে স্হানীয় জনতা গনধোলাই দেয়।পরবর্তীতে গরু ও ট্রান্সফরমার চোরের অভিযোগে রিয়াদকে থানা পুলিশের হাতে সৌপর্দ করা হয়।এসময় তার কাছ থেকে ২শ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম উক্ত প্রতিবেদককে জানান,আটক সোহেল একজন এলাকায় চিহ্নিত চাঁদাবাজ হিসেবে পরিচিত।সোহেল এলাকায় পুলিশ ও সাংবাদিকের নাম ভাঙিয়ে এলাকার লোকজনকে ভয় দেখাত এবং চাঁদাবাজী করত।তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিল স্হানীয়রা। তার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর অভিযোগের শেষ নেই।
তিনি আরো বলেন,আটক রিয়াদ ট্রান্সফরমার ও গরু চুরির অপরাধে এলাকাবাসীরা গনধোলাই দেওয়ার পর আমাদের থানা পুলিশের হাতে সৌপর্দ করা হয়।তার বিরুদ্ধেও লোহাগাড়া থানায় ডাকাতি, চুরি ও অস্ত্র আইনে মামলা রয়েছে।
চাঁদাবাজ সোহেলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী মামলা এবং রিয়াদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে বলে থানা সুত্রে জানা গেছে।
বড়হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এমডি জুনাইদ চৌধুরী বলেন,সোহেল এলাকার চিহ্নিত চাঁদাবাজ,টাউট বাটপার।সে এলাকায় মানুষকে জিম্মি করে রাখত।সবসময় পুলিশের ভয় দেখাত।এলাকাবাসীরা তাকে আটক করায় অনেক খুশী।এদিকে,চাঁদাবাজ সোহেলকে আটক করায় এলাকাবাসীরা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে এবং স্হানীয় এলাকাবাসী লোহাগাড়া থানার ওসি মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে অনেক ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::