তারিখ: মঙ্গলবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং, ১৪ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:


ঢাকা, ০৯ ডিসেম্বর – বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিলের দাবিতে তৃতীয় দিনের মতো গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেছে সাধারণ মানুষ।

সোমবার রাজধানীর মালিবাগ মোড়ে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন ও সাধারণ নাগরিক সমাজের উদ্যোগে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাবে সাধারণ মানুষের গণস্বাক্ষর নেয়া হয়। কর্মসূচিতে ১ হাজার ২১১ জন সাধারণ মানুষ এ কর্মসূচিতে স্বাক্ষর করেন।

সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আপনাদের স্বাক্ষর সংগ্রহ করে সরকারের কাছে পৌঁছাতে চাই। সরকার নিশ্চয় জনগণের মতামতের মূল্যায়ন করবেন। লাইফ লাইনে সুবিধা দেয়ার কথা বললেও নাগরিকরা প্রকৃতপক্ষে সে সুবিধা পাচ্ছে কি না- তার তদন্ত হওয়া উচিত। কতিপয় দুর্নীতিবাজ আর লুটেরাদের জন্য বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করা মোটেও সমীচীন হবে না। সরকারের উচিত কমিশনকে বলা আনীত প্রস্তাব বাতিল করা হোক।

কর্মসূচিতে বাংলাদেশ কর্মসংস্থান আন্দোলনের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন বলেন, রফতানিখাত এমনিতেই প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছে না। নতুন করে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করলে দেশের শিল্পে উৎপাদনের ব্যাঘাত ঘটবে। সেই সঙ্গে জীবনযাত্রার ব্যয় অসহনীয় হয়ে পড়বে।

কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে আব্দুল মজিদ গাজী নামে একজন সাধারণ নাগরিক বলেন, সরকার বিদ্যুৎ কোম্পানির কাছে জিম্মি হয়ে যাচ্ছে। পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের পর বিদ্যুৎ সিন্ডিকেট করে জীবনযাত্রার দুর্বিষহ করার পাঁয়তারা করা হচ্ছে। দফায় দফায় বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি নাগরিকদের ওপর নির্যাতন ছাড়া কিছুই না।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য জোয়ারদার আহমেদ, গ্রীন পার্টির চেয়ারম্যান রাজু আহমেদ খান প্রমুখ।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৯ ডিসেম্বর




Share: