বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০২:৫৩ অপরাহ্ন

লামা হতে অপহৃত স্কুল ছাত্রী সিলেটে উদ্ধার

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: মে ৩০, ২০১৮ ৭:১২ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: মে ৩০, ২০১৮ ৭:১২ পূর্বাহ্ণ

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা ::
বান্দরবানের লামা হতে অপহৃত সপ্তম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী মমিনা আক্তার (১২) কে নিখোঁজের ১০ দিন পরে সিলেট জেলার জালালাবাদ হতে উদ্ধার করেছে লামা থানা পুলিশ। এ সময় অপহরণকারী মো. মনিরুল ইসলাম (৪২) কে আটক করা হয়।
লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা জানিয়েছেন, লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক কৃষ্ণ কুমার দাস সঙ্গীয় এএসআই কামাল উদ্দিন সহ ৫ সদস্যের একটি চৌকস টিম উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে।
এসআই কৃষ্ণ কুমার দাস বলেন, গত ২০ মে রোববার গজালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় হতে কোচিং ক্লাস শেষে বাড়ি ফিরে আসার সময় মো. মনিরুল ইসলাম মেয়েটিকে তুলে নিয়ে যায়। ঘটনার ৫ দিন পর ২৪ মে বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়ের সন্ধানে তার মা মিনারা বেগম থানায় এসে একটি নিখোঁজ ডায়েরি করে। নিখোঁজ ডায়েরি নং- ৯৩৮, তারিখ- ২৪ মে ২০১৮ইং। নিখোঁজ ডায়েরির তথ্য মতে মেয়েটিকে উদ্ধারে কাজ শুরু করে পুলিশ।
অপহরণকারী মোবাইল ফোন ট্রেকিং ও তার নিকট আত্মীয়দের সহায়তায় ৫ দিনের মধ্যে সিলেট জেলার জালালাবাদ থানার টোকের বাজার হতে ২৯ মে রাতে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয় পাশাপাশি অপহরণকারী মো. মনিরুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। মনিরুল ইসলাম খুলনা জেলার রুপসা থানার মেশাঘুনী এলাকার শীকলতলা গ্রামের শেখ মো. মুনছুর আলী ও মোমেনা বেগমের ছেলে। উদ্ধার অভিযানে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) জালালাবাদ থানা সার্বিক সহায়তা করেছে।
তদন্তকারী অফিসার কৃষ্ণ কুমার দাস আরো জানান, ৩০ মে বুধবার দুপুরে লামা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিট্রেট আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় জবানবন্ধী দেয় মেয়ে। বৃহস্পতিবার তাকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য বান্দরবান জেলা হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::