রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২৯ অপরাহ্ন

রোহিঙ্গা নির্যাতনের বর্ণনা শুনে শিউরে উঠলেন বিশ্বসুন্দরী প্রিয়াঙ্কা

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: মে ২১, ২০১৮ ৫:৫৬ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: মে ২১, ২০১৮ ৬:০৪ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজার রোহিঙ্গা নারীদের মুখে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংস ও বর্বরোচিত নির্যাতনের কথা শুনছেন বলিউড অভিনেত্রী ও ইউসিফে এর শুভেচ্ছা দূত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। নির্যাতনের রোমহর্ষক বর্নণা শুনে এসময় শিউরে উঠেন সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী। প্রিয়াংকা চোপড়ার স্পর্শ পেয়ে কান্না গড়িয়ে পড়ে নির্যাতিত অনেক রোহিঙ্গা নারীর।

সোমবার পৌনে চারটার দিকে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শাপলাপুর রোহিঙ্গা শিবিরে পৌছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এসময় তিনি ইউনিসেফ এর হাসপাতালে বেশ কয়েকজন নির্যাতিত রোহিঙ্গা নারীর সাথে কথা বলেন। প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে মিয়ানমারের নৃশংস হত্যাযজ্ঞের বর্ণনা দিতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন রোহিঙ্গা নারী রেহেনা বেগম (২৭)। তিনি (অভিনেত্রী) কথা বলার সময় সেখানে গণমাধ্যম কর্মীদের যেতে দেওয়া হয়নি। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া হাসপাতাল ত্যাগ করার পর কথা হয় রেহেনা বেগমের সাথে।

তিনি বলেন, সহিংসতা শুরুর দিকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্যরা চোখের সামনে তাঁর ভাই আব্দুর রহমানকে নৃশংসভাবে হত্যা করে। তাদের উপরও নির্যাতনের খড়গ নেমে এসেছিলো। তবে কোন রকম প্রাণে রক্ষা পেয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমি বলেছি, মিয়ানমার সেনাবাহিনী নারী ও শিশুদের উপর যে নির্যাতন চালিয়েছে সেটি বর্ণানাতীত। এটি চোখে প্রত্যক্ষ করা বুঝা সম্ভব নয়। সেখানকার সেনাবাহিনী যে কত বর্বর সেই বর্ণনা দিয়েছি’। বর্তমানে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া পায়ে হেটে শাপলাপুর রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করছেন।

এছাড়াও প্রিয়াঙ্কা ক্যাম্পের রোহিঙ্গা শিশুদে%

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::