তারিখ: শনিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

Share:

সোয়েব সাঈদ, রামু ::

রামুতে অপহরণের ২দিন পর ৫ম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত ২ জনকে আটক করা হয়েছে। রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। অপহৃত শিশুটি জোয়ারিয়ানালা ঘোনারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী। এ ঘটনায় আটককৃতরা হলো, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রাম এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মিজানুর রহমান (২০) ও জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী সাজেদা বেগম (৪৫)।

অপহৃত ছাত্রীর মা জানান, আটককৃত মিজানুর রহমান সম্প্রতি তার মেয়েকে বিদ্যালয়ে আসা যাওয়ার সময় বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করতো। বিষয়টি তারা বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অবহিতও করেন। গত ২২ আগষ্ট বিকাল তিনটায় বিদ্যালয় ছুটির পর তার মেয়ে এক সহপাঠির (বান্ধবী) সাথে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়ক পৌছলে মিজানুর রহমান ও তার কয়েকজন সহযোগি জোরপূর্বক তার মেয়েকে অটোরিক্সায় তুলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। ওইদিন তিনি বিষয়টি বখাটে মিজানুর রহমানের মাকে জানালে তিনি উল্টো তাকে হুমকী-ধমকি দেয়।

পরে মেয়েটির মা এবং স্বজনরা পরদিন (শুক্রবার) রামু থানায় এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে রামু থানা পুলিশ শনিবার (২৪ আগষ্ট) সকালে জোয়ারিয়ানালা এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহরণের শিকার স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে। একই সময় আটক করা হয় অপহরণের ঘটনায় অভিযুক্ত বখাটে মিজানুর রহমান ও তার মা সাজেদা বেগমকে। এ ঘটনায় শনিবার অপহরণের শিকার ছাত্রীর মামা বাদি হয়ে রামু থানায় মামলা করেছেন।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল খায়ের জানিয়েছেন, অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধার এবং অপহরণের ঘটনায় অভিযুক্ত মিজানুর রহমান সহ ২জনকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে ছাত্রীর মামা বাদি হয়ে মামলা করেছেন।

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::

error: কপি করা নিষেধ !!