শিরোনাম ::
সামাজিক সংহতি ও শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত উখিয়ার রাজা পালং মাদ্রসা দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে নানা অভিযোগ, তদন্ত কমিটি গঠিত মুক্তি কক্সবাজারের উদ্যোগে উখিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফ্রেন্ডশিপের প্রশিক্ষণে চ্যাম্পিয়ন ভালুকিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের নারী ফুটবল টিমকে সংবর্ধনা উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত সীমান্তে গুলির শব্দ থামছে না
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৩৭ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

মিয়ানমারে পতাকা বৈঠক শেষে ৪১জন স্বদেশীকে ফেরত আনল বিজিবি

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: বুধবার, ২৩ মার্চ, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমারের কারাগারে বিভিন্ন মেয়াদের সাজা শেষে মানবেতর দিনযাপনকারী ৪১জন বাংলাদেশীকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ফেরত এনেছে বিজিবি। ফেরত আসা নাগরিকদের আইনী প্রক্রিয়ায় পরিবারের নিকট হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

জানা যায়, ২৩ মার্চ (বুধবার) সকাল পৌনে ১০টায় মিয়ানমারের অভ্যন্তরে পয়েন্ট অব এন্ট্রি নামক স্থানে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) এবং মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) র মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত বৈঠকে বাংলাদেশ ১৬জন সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার এবং মিয়ানমার ৯জন সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন পিইন পিউ ১নং বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্র্যাঞ্চের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল কাও না ইয়াং শু। দীর্ঘ পৌনে ৬ঘন্টাব্যাপী বৈঠকে উভয় দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট এবং সীমান্ত ব্যবস্থাপনার উপর ফলপ্রসু আলোচনা হয়। এছাড়া উভয় দেশের সৌহার্দ্য এবং বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক উত্তরোত্তর উন্নতি ও সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য উভয় দেশের প্রতিনিধি দল মতামত ব্যক্ত করেন। বৈঠক শেষে মিয়ানমার কারাগারে সাজা ভোগকারী ৪১জন বাংলাদেশী নাগরিককে প্রতিনিধি দলের নিকট হস্তান্তর করেন।

বিকাল সাড়ে ৩টারদিকে দেশে ফিরে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল ট্রানজিট ঘাটে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। এতে জানানো হয় বাংলাদেশী নাগরিকগণ বিভিন্ন সময়ে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে মিয়ানমার গিয়ে বিজিপি কর্তৃক আটক হয়ে সাজা ভোগ করে আসছিল।

গত বছরের ৬ই মে বিষয়টি বাংলাদেশ সরকার, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মিয়ানমারস্থ বাংলাদেশ দূতাাবাস ও বিজিবি অবগত দীর্ঘ ১বছর প্রচেষ্টা চালানোর পর অবশেষে বিজিবির সহায়তায় পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে দেশে ফিরে আসতে পারল ৪১জন স্বদেশী নাগরিক।

ফিরে আসা নাগরিকেরা চট্টগ্রাম পার্বত্য এলাকা,উখিয়া এবং টেকনাফের প্রত্যন্ত এলাকার বাসিন্দা। ফেরত আসা নাগরিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে পরিবারের নিকট হস্তান্তরের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরো খবর: