সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

ভাষার দিনে নভেরা আহমেদকে স্মরণ জয়ার

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১ ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১ ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ

ভাষার দিনে নভেরা আহমেদকে স্মরণ জয়ার


নিজস্ব প্রতিবেদক:সারাবিশ্বে পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। রফিক, সালাম, বরকতদের নাম উল্লেখ করে স্মরণ না করলেও অভিনেত্রী জয়া আহসান স্মরণ করেছেন বাংলাদেশি ভাস্কর নভেরা আহমেদকে। অনেকে অবশ্য শহীদ মিনারের মূল নকশাকারী হিসেবে নভেরাকে মনে করেন।

জয়া আহসান ২১ ফেব্রুয়ারি দিনটা শুরুর দিকে তিনি ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। সেই পোস্টে তিনি নভেরা আহমেদকে উল্লেখ করেছেন। সেখানে সাদাকালো ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি হাতের উপর ‘অ’ অক্ষরটি বসানো। যেন সেই অক্ষরটিকে রক্ষা করছে ওই হাতকে।

নভেরা আহমেদ, ছবি সংগৃহীত

১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের কথা, আন্দোলনের শহিদদের কথা, ১৯৭১-এর মুক্তি যুদ্ধের কথাও মনে করিয়ে অভিনেত্রী ক্যাপশনে লেখেন, ‘আমাদের ভাষার দাবির ভেতরে সুপ্ত ছিল ভবিষ্যতের রাষ্ট্রের দাবি। পাকিস্তানি শাসকেরা সেটা ঠিকই বুঝেছিল। তাই দুই-দুইবার তারা ভেঙে দিয়েছিল আমাদের প্রাণের শহীদ মিনার। একবার বায়ান্নোয়, আরেকবার একাত্তরে। ভেঙে দিয়েছিল, কিন্তু মোটেই নিশ্চিহ্ন করতে পারেনি। বাঙালির ভাষা শহীদ দিবস আজ বিশ্বজনের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। একুশে আজ সবার ভাষার দাবির কথা বলে।

নভেরা আহমেদের নকশা করা শহীদ মিনারের ভাস্কর্যের আদলও আজ ছড়িয়ে পড়েছে পৃথিবীজুড়ে। বাংলাদেশের এমন কোনো অঞ্চল নেই যেখানে শহীদ মিনারের রেপ্লিকা নেই। লাখ খানেকের কাছাকাছি। এখন আর সেটি শুধু বাংলাদেশের সীমানাতেই আটকে নেই, ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। এক ভারতেই ১৪-১৫টি। আরও আছে আমেরিকায়, ব্রিটেনে, অস্ট্রেলিয়ায়, বেলজিয়ামে। বাংলাদেশের বাইরে সব মিলিয়ে প্রায় ২৫টির মতো। হচ্ছে আরও বেশ কিছু দেশে। আমার বিশ্বাস আরও হবে। মায়ের ভাষার প্রতি ভালোবাসা কার না বুকে আছে!

এই শহীদ মিনারের সঙ্গে মায়ের ভাষার প্রতি আমাদের ভালোবাসা জেগে থাকুক পৃথিবীর কোণে কোণে।’

সান নিউজ/এসএস

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::