শিরোনাম :
মৃত্যু নিশ্চিত করতে পর পর দুটি গুলি করেন ওসি প্রদীপ দীর্ঘদিন পর অনুশীলনটাকে চ্যালেঞ্জিং মনে হচ্ছে মুমিনুলের বৈরুতে নেতাদের ওপর ক্ষোভ বাড়লেও উদ্ধার কাজে এসেছে গতি দক্ষ ও প্রশিক্ষিত কৃষি-গ্রাজুয়েট তৈরি করতে হবে: কৃষিমন্ত্রী লাইসেন্সবিহীন হাসপাতাল-ক্লিনিকের তথ্য চেয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর অবশেষে করোনামুক্ত অভিষেক, এক মাস পর হাসপাতাল ছাড়লেন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের অনুসন্ধানে প্রবাসীদের সহযোগীতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিনহা হত্যা মামলার ৪ আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ, ৩ আসামীকে এখনো রিমান্ডে নেয়নি কেরালার বিমান দুর্ঘটনায় অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেল এক পরিবার মাশরাফীর বাবা-মাসহ পরিবারের চারজন করোনায় আক্রান্ত
রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন

বিতর্কিত পোস্টের জন্য ক্ষমা চাইলেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর ছেলে

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: July 29, 2020 3:25 am | সম্পাদনা: July 29, 2020 3:25 am


জেরুজালেম, ২৯ জুলাই – বাবার মতোই বেপরোয়া আচরণের জন্য দেশে-বিদেশে ব্যাপক সমালোচিত ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বড় ছেলে ইয়াইর। দায়িত্বজ্ঞানহীন পোস্টের জন্য এর আগেও ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

এ মাসের শুরুতে ইসরাইলের এক সংবাদ পাঠিকার উদ্দেশে বলেছিলেন, তিনি যৌন সম্পর্ক করে ক্যারিয়ারে ওপরে উঠেছেন। যদিও পরে সেই পোস্টের জন্যও ক্ষমা চেয়েছিলেন নেতানিয়াহুর ছেলে।

২৬ জুলাই বিতর্কিত পোস্ট দিয়ে আবারও নেটিজেনদের তোপের মুখে ইয়াইর নেতানিয়াহু। এ জন্য সোমবার থেকে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে বেড়াচ্ছেন।

দুর্নীতির অভিযোগে বিচার চলছে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর। বাবার হয়ে ওকালতি করতে গিয়ে বিপত্তি বাধিয়েছেন বড় ছেলে ইয়াইর।

ভারতীয় এবং ভারতের বাইরের হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক আক্রমণ শুরু করার পর শেষ পর্যন্ত ক্ষমা চাইতে হয়েছে তাকে।

টুইটারে দেবী দুর্গাকে হেয় করে বিতর্কিত ওই পোস্ট সরিয়ে দিয়ে তিনি এখন বলছেন, ওই ছবির মর্মার্থ তিনি বুঝতে পারেননি। তার পরও বিতর্ক পিছু ছাড়েনি তার। এখনও অনেকে আক্রমণ করে চলেছেন।

আরও পড়ুন: হিজবুল্লাহ আগুন নিয়ে খেলছে: নেতানিয়াহু

বিতর্কের সূত্রপাত ইয়াইরের একটি পোস্ট ঘিরে। প্রতারণা, বিশ্বাসভঙ্গ, ঘুষ নেয়াসহ একাধিক অভিযোগে বিচার চলছে নেতানিয়াহুর। কিন্তু ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর সাফাই, তার বিরুদ্ধে বৃহত্তর ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।

বাবার পাশে দাঁড়াতে গিয়ে রোববার টুইটারে একটি পোস্ট দেন ইয়াইর। তাতে হিন্দুদের দেবী দুর্গার ছবিতে মুখ পাল্টে তার বাবার আইনজীবী লিয়াত বেন আরির ছবি বসিয়েছিলেন।

সুপার ইম্পোজ করে ওই ছবি বসানো হয়েছিল। দশটি হাতের ছবিও বিকৃত করা হয়েছিল। আর দুর্গার বাহন সিংহের মুখে বসানো হয়েছিল ইসরাইলে অ্যাটর্নি জেনারেলের মুখ।

এ ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হতেই তীব্র বিতর্ক শুরু হয়। ইয়াইরকে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচণ্ড সমালোচনা করতে শুরু করেন ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ।

এটি শুধু দেবী দুর্গা নয়, হিন্দু সম্প্রদায়কে ইয়াইর অপমান করেছেন বলে বহু মানুষ সরব হন। তার পরেই ওই পোস্ট সরিয়ে দেন ইয়াইর।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ২৯ জুলাই




কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::