তারিখ: বৃহস্পতিবার, ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:
বলের পর ব্যাট হাতেও সেঞ্চুরি ইয়াসির শাহর


অ্যাডিলেড, ০১ ডিসেম্বর- গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা ক্রিকেট- এই কথার প্রমাণ মেলে প্রতিনিয়ত। আরও একবার কথাটি প্রমাণিত হলো অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেইড ওভালে। যেখানে বিশ্বের ১৯তম ও পাকিস্তানের ৩য় ব্যাটসম্যান হিসেবে দিবারাত্রির টেস্টে সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন আপাদমস্তক বোলার ইয়াসির শাহ।

নন স্ট্রাইক প্রান্তে দাঁড়িয়ে ইয়াসির শাহ দেখেছেন ৯৭ রানে বাবরকে আউট হয়ে যেতে। নয়তো বাবরই হতে পারতেন তৃতীয় পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে দিবারাত্রির টেস্টে সেঞ্চুরিয়ান। বাবর না পারলেও, তা করে দেখালেন ইয়াসির শাহ।

ম্যাচের প্রথম ইনিংসে বল হাতে মাত্র ৩ রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি মিস করেছিলেন ইয়াসির। অর্থাৎ ৩২ ওভারে তিনি খরচ করেছিলেন ১৯৭ রান। আর মাত্র ৩ রান খরচ করলেই বিশ্বের প্রথম বোলার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে তিন বার ২০০’র বেশি রান দেয়ার বিব্রতকর রেকর্ডে উঠে যেত ইয়াসির শাহর নাম।

বল হাতে বিব্রতকর এই রেকর্ডে নাম ওঠেনি সত্যি, তবে ব্যাট হাতে ঠিকই মনে রাখার মতো কাজই করেছেন তিনি। নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতকটিকে রূপ দিয়েছেন প্রথম সেঞ্চুরিতে। মিচেল স্টার্ক, নাথাল লায়ন, প্যাট কামিনসদের সামলে ১৯২ বলে ১২ চারের মারে পূরণ করেন সেঞ্চুরি।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৮৯ ওভারে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ২৭৯ রান। অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এখনও ৩১০ রানে পিছিয়ে রয়েছে তারা। ইয়াসির ১০৩ ও মোহাম্মদ আব্বাস ২৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

এর আগে অ্যাডিলেইড ওভালে ম্যাচের দ্বিতীয় দিনের শেষ বিকেলে স্টার্কের গতির ঝড়ে অসহায় ছিলো পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। স্টার্ক ৪ উইকেট নিলে মাত্র ৯৬ রানে পাকিস্তানের ৬ উইকেট তুলে নেয় অস্ট্রেলিয়া। তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে ৪৩ রানে অপরাজিত ছিলেন বাবর।

ডানহাতি এ মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের উইলোতেই বড় কিছু স্বপ্ন দেখছিলো পাকিস্তান। তাদের আশাহত করেননি বাবর। তৃতীয় দিন সকালে সঙ্গী হিসেবে পেয়ে যান লেগস্পিনার ইয়াসির শাহকে। দুজন মিলে সপ্তম উইকেট জুটিতে যোগ করেন ১০৫ রান। বাবর এগিয়ে যাচ্ছিলেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরির দিকে, ইয়াসিরের অপেক্ষা ছিলো প্রথম অর্ধশতকের।

ঠিক তখনই দৃশ্যপটে আবির্ভুত হন স্টার্ক। দারুণ এক আউটসুইঙ্গারে উইকেটের পেছনে ক্যাচে পরিণত করেন ৯৭ রান করা বাবর আজমকে। যার ফলে আজহার আলি ও আসাদ শফিকের পর তৃতীয় পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে দিবারাত্রির টেস্টে সেঞ্চুরি করার সুযোগ হাতছাড়া হয় তার।

এদিকে বাবরের সুযোগ হাতছাড়া হলেও, স্টার্ক ঠিকই নিজের কাজ করেছেন। পাকিস্তানের লেগস্পিনার ইয়াসির শাহ ও নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্টের পর বিশ্বের তৃতীয় বোলার হিসেবে গোলাপি বলে দুইবার ৫ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেছেন তিনি।

বাবরকে আউট করে ফাইফার নেয়ার পরের বলেই শাহিন শাহ আফ্রিদিকেও আউট করেন স্টার্ক। তবে নবম উইকেটে মোহাম্মদ আব্বাসকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েছেন ইয়াসির শাহ। এরই মধ্যে জুটিতে এসেছে ৮৫ রান।

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/০১ ডিসেম্বর




Share:
error: কপি করা নিষেধ !!