শিরোনাম ::
উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত সীমান্তে গুলির শব্দ থামছে না উখিয়ায় প্রশাসনের অভিযানে ৩টি ড্রেজার মেশিন ও ২টি বন্দুকসহ অস্ত্র উদ্ধার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারো খুন মুক্তি কক্সবাজার-এর উদ্যোগে ব্যবসায়ী ও উপকারভোগীদের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত পালস-এর উদ্যোগে “বর্ণবাদ-শান্তি ও সম্প্রীতির অন্তরায়” বিষয়ক বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

বংশালে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ: দগ্ধ ৩ আহত ৬

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১
বংশালে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ: দগ্ধ ৩ আহত ৬

[ad_1]

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বংশালে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে একই পরিবারের শিশুসহ ৩ জন দগ্ধ ও ৬ জন আহত হয়েছেন। ভবনটির বেশ কিছু অংশ ভেঙ্গে পড়েছে। সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে বারোটার দিকে ঘটনাটি ঘটে।


দগ্ধরা হচ্ছেন, মোঃ কামাল হোসেন (৩৫) ৪০%, স্ত্রী মোছাঃ সেলিনা আক্তার (৩০) ৬%, মেয়ে নওরীন জাহান বন্যা (৭) ৩% পুড়ে গেছে। আহতরা হলেন, মারুফ (১২), নুসরাত (১), আরিফা (৬), আসাদুল্লাহ (৪), শিলা (৩০) ও মলিনা (২১)। দগ্ধ রাজমিস্ত্রি কামাল ময়মনসিংহ জেলার গৌরিপুর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের সেকেন্দার বাদশার ছেলে।


জানা গেছে, বংশালের আলুবাজারের হাজী ওসমান গনি রোডে ৪ তলা ভবনের নীচ তলায় গ্যাস লাইন থেকে বিস্ফোরণে একই পরিবারের স্বামী-স্ত্রী ও কন্যা দগ্ধ হয়, এছাড়া ২য় তলায় থাকা ৬ জন আতঙ্কে দৌঁড়িয়ে নামতে গিয়ে নামতে আহত হয়েছেন। স্থানীয়দের ধারণা রান্নাঘরের পাশে গ্যাসের লাইন বিস্ফোরণে আগুনের ঘটনা ঘটতে পারে। দগ্ধদের মধ্যে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটে কামাল হোসেন ভর্তি রয়েছেন।


দগ্ধ কামালের স্ত্রী সেলিনা আক্তার বলেন, সোমবার দিবাগত রাতে সাড়ে ১২টায় ভবনের নিচ তলা ভাড়া বাসায় রুমের মধ্যে ছিলাম। হঠাৎ বাইরে থেকে শব্দ ঘরের দেওয়ালের ইট ধসে পড়ে ও মুহূর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে আমার স্বামী ও মেয়েসহ আমি দগ্ধ হয়েছি।


আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া।


ইনিস্টিউটের আবাসিক সার্জন এস এম আইউব হোসেন বলেন, কামালের শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তিনি আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আর শিশুসহ দু’জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।


সান নিউজ/মোস্তাফিজ/এমকেএইচ


[ad_2]


আরো খবর: