শিরোনাম :
উখিয়া প্রেসক্লাব নির্বাচনের চুড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ আলীকদমে শর্টবড়ি (চাঁদেরগাড়ী) মাইক্রো বাস মালিক সমবায় সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন ঝিলংজা ইউনিয়ন যুবলীগের ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত উখিয়ার আবদুর রহিম ইয়াবা নিয়ে র‍্যাবের হাতে আটক নাইট কোচে ডাকাতি: গ্রেপ্তারকৃত বাস চালক সহ তিনজনকে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন মহেশখালী থেকে ছিনতাই হওয়া মটরসাইকেল উদ্ধার : গ্রেফতার-১ টেকনাফে ১০হাজার ইয়াবা বড়িসহ আটক-১ কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পরিবেশ, পর্যটন ও উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত সেন্টমার্টিনে কোস্টগার্ডের অভিযানে ইয়াবা ও গাজাসহ আটক ২ উৎসবমুখর পরিবেশে উখিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা
সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

ফের সন্ত্রাসবাদী হামলায় রক্তাক্ত কাশ্মীর, নিহত ৩

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: অক্টোবর ২৯, ২০২০ ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: অক্টোবর ২৯, ২০২০ ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

[ad_1]

শ্রীনগর, ২৯ অক্টোবর- সন্ত্রাসবাদী হামলার জেরে ফের রক্তাক্ত হয়ে উঠল ভূস্বর্গে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগামে তিন বিজেপি কর্মীকে গুলি করে খুন করল অজ্ঞাত পরিচয়ের জঙ্গিরা। নিরাপত্তারক্ষীরা গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি চালালেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যাবেলায় কুলগাম (Kulgam) এলাকার যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক ফিদা হুসেন ইটু (Fida Hussain itoo) এবং দুই বিজেপি কর্মী উমর হাজাম ও হারুন রশিদ বেগের উপর ওয়াই কে পোরা এলাকায় অতর্কিতে হামলা চালায় কয়েকজন জঙ্গিরা। ওই তিন জনকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়তে থাকে।

পরে তাঁরা রাস্তায় লুটিয়ে পড়তেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় জঙ্গিরা। বিষয়টি দেখতে পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা তাড়াতাড়ি ওই তিন বিজেপি নেতা-কর্মীকে উদ্ধার করে কাজীগুন্দ (Qazigund) হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু, সেখানকার চিকিৎসকরা ওই তিন জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। হাসপাতালে আসার আগেই তাঁদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান।

আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোকে ‘ব্যক্তিগত আক্রমণের’ তীব্র নিন্দা ভারতের

এপ্রসঙ্গে কাজীগুন্দ হাসপাতালের সুপার ডা. অসীমা বলেন, ‘ওই তিন জনকে হাসপাতালে আনার পর দেখা যায় তাঁরা আগেই মারা গিয়েছেন। ফলে আমাদের কিছুই করার ছিল না।’

গত জুলাই মাসে সন্ত্রাসবাদীদের বুলেটে ঝাঁজরা হয়ে গেছিল জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন বিজেপি রাজ্য সভাপতি ওয়াসিম বারির শরীর। বাড়ির সামনে মৃত্যু হয় তাঁর বাবা ও ভাইয়েরও। ইতিমধ্যে হামলার দায় স্বীকার করেছে জইশ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তইবা এবং হিজবুল মহম্মদ জঙ্গি সংগঠনের সম্মিলিত স্থানীয় সগঠন ‘দি রেজিটেন্স ফ্রন্ট’ (The Resistance Front )। যদিও পুলিশের দাবি ছিল, এই হামলার মূলচক্রী পাকিস্তানি জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ। এই ঘটনায় ওই বিজেপি নেতার পরিবারের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ১০ জন পুলিশকর্মীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন
এন এইচ, ২৯ অক্টোবর



[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::