বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৫ অপরাহ্ন

পেকুয়া সোনালী সমবায় সমিতির ভোট গ্রহন সম্পন্ন

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: জুলাই ৭, ২০১৮ ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: জুলাই ৭, ২০১৮ ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ

নাজিম উদ্দিন, পেকুয়া:
পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নে অবস্থিত সোনালী সমবায় সঞ্চয় ও ঋণদান সমিতি লি:(রেজি: নং ১৫৯) এর পরিচালনা কমিটির নির্বাচন ৭ জুলাই বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও উৎসব মুখর পরিবেশে সুষ্টুভাবে নির্বাচন অনুষ্টিত হয়। সোনালী বাজারস্থ ইউ,এম কিন্ডার গার্টেনে অনুষ্টিত উক্ত নির্বাচন সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্য দিয়ে ভোট গ্রহন চলে। নির্বাচনে ৪৭৫ জন ভোটারের মধ্যে ৪২৬ জন ভোট ভোটাধিকার প্রয়োগ করে। মোট ১৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৬ জন প্রার্থীকে নির্বাচিত করা হয়। সদস্য/সদস্যাদের গোপন ভোটে ছাতা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত সভাপতি হলেন হেলাল উদ্দিন (প্রাপ্ত ভোট ২৫৯)। তার নিকটতম প্রজাপতি প্রতীক নিয়ে নুরুল আবছার প্রাপ্ত ভোট(৯২)। দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে সহসভাপতি নির্বাচিত হলেন কামাল উদ্দিন প্রাপ্ত ভোট ১৯১। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ছিলেন গোলাপফুল প্রতীক নিয়ে মনজুর আলম, প্রাপ্ত ভোট-১৪৩। সেক্রেটারী নির্বাচিত হলেন হরিন প্রতীক নিয়ে আবদুল গফুর প্রাপ্ত ভোট-১৫৬। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ছিলেন হারিকেন প্রতীক নিয়ে মো: ইয়াসিন প্রাপ্ত ভোট-১৫৪। সদস্য নির্বাচিত হলেন আম প্রতীক নিয়ে জয়নাল আবদীন প্রাপ্ত ভোট-২২৮, মই প্রতীক নিয়ে মো: নুরুচ্ছফা প্রাপ্ত ভোট-২২০, মাছ প্রতীক নিয়ে মো: গিয়াস উদ্দিন প্রাপ্ত ভোট-২১৬। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ছিলেন তালা চাবি প্রতীক নিয়ে আজগর আলী প্রাপ্ত ভোট ১৯০। এ দিকে নির্বাচন পরিচালনার অন্তবর্তী দায়িত্বে ছিলেন সভাপতি ও উপজেলা কর্মকর্তা কালব মো: হাফিজুর রহমান বাবু, সদস্য এয়ার মোহাম্মদ, নাছির উদ্দিন। সুষ্টুভাবে ভোট গ্রহনের নিমিত্তে প্রিসাইডিং হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন হানিফ চৌধুরী। অতিথি ছিলেন কালব জেলা ব্যবস্থাপক সমীরন কান্তি দাশ। সকালে মগনামা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিম ও সাংবাদিকবৃন্দ নির্বাচনী কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::