শিরোনাম :
বিভিন্নস্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরলো ২০ প্রাণ মৃত্যু নিশ্চিত করতে পর পর দুটি গুলি করেন ওসি প্রদীপ দীর্ঘদিন পর অনুশীলনটাকে চ্যালেঞ্জিং মনে হচ্ছে মুমিনুলের বৈরুতে নেতাদের ওপর ক্ষোভ বাড়লেও উদ্ধার কাজে এসেছে গতি দক্ষ ও প্রশিক্ষিত কৃষি-গ্রাজুয়েট তৈরি করতে হবে: কৃষিমন্ত্রী লাইসেন্সবিহীন হাসপাতাল-ক্লিনিকের তথ্য চেয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর অবশেষে করোনামুক্ত অভিষেক, এক মাস পর হাসপাতাল ছাড়লেন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের অনুসন্ধানে প্রবাসীদের সহযোগীতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিনহা হত্যা মামলার ৪ আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ, ৩ আসামীকে এখনো রিমান্ডে নেয়নি কেরালার বিমান দুর্ঘটনায় অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেল এক পরিবার
রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

পেকুয়া সদর ইউনিয়নে দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ-৩ : স্কুল ছাত্রীসহ আহত-১০

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: June 15, 2020 9:49 am | সম্পাদনা: June 15, 2020 9:49 am

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া::

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সদর ইউনিয়নের সিরাদিয়া গ্রামে দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। দুইদিনে একই স্থানে পৃথক সংঘর্ষের ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। এ সময় পৃথক ২ দিনে অন্তত ১৩ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করা হয়েছে।

এ সময় প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে ৩ জন গুলিবিদ্ধসহ ১৩ জন জখম হয়েছে। জখমীদের মধ্যে ১ জন স্কুল ছাত্রী, ১ জন স্কুল ছাত্রসহ ১০ জন জখম হয়েছে। ৩ জন গুলিবিদ্ধের মধ্যে ১ জন ক্ষমতাসীন দল আ’লীগের ওয়ার্ড কমিটির সাবেক সভাপতিও রয়েছে।

আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ আ’লীগ নেতা সাহাব উদ্দিন (৫০) ও তার মেয়ে জালিয়াখালী হেদায়তুল উলুম দাখিল মাদ্রাসার ৬ষ্ট শ্রেনীর ছাত্রী জন্নাতুল ফেরদৌস (১২), মৃত ইসলাম মিয়ার ছেলে আলমগীর (৪০) কে চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। ঘটনার জের ধরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের সিরাদিয়া গ্রামে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উভয়পক্ষের মধ্যে কয়েক দফা ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় বিকট বন্দুকের আওয়াজে সদর ইউনিয়নের সিরাদিয়া, জালিয়াখালীসহ মাতামুহুরী নদীর অপর প্রান্ত চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নের বাংলাবাজার, শহর আলী ষ্টেশনসহ উজানটিয়া ইউনিয়নের পূর্ব প্রান্ত সুতাচোরাসহ আরও একাধিক গ্রামে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। ভয়ে মানুষ দিক বিদিক ছুটাছুটি করতে দেখা গেছে।

১৫ জুন (সোমবার) বিকেল সাড়ে ৪ টা ও ১৪ জুন বিকাল ৫ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের সিরাদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন ওই এলাকার মৃত মোহাম্মদ শরীফের ছেলে আ’লীগ সদর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড কমিটির সাবেক সভাপতি সাহাব উদ্দিন (৫০), মৃত আইস্যা মিয়ার ছেলে জাবের আহমদ (৪৮), নজরুল ইসলামের ছেলে আমানুল্লাহ (১৬)।

সংঘর্ষে আহতরা হলেন মৃত ইসলাম মিয়ার ছেলে আলমগীর (৪০), সাহাব উদ্দিনের মেয়ে জন্নাতুল ফেরদৌস (১২), মৃত এজাহার মিয়ার ছেলে শফিউল আলম (৩৮), ছরওয়ার উদ্দিনের ছেলে মেহেরনামা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্র সাইফুল ইসলাম (১৪), তার পিতা ছরওয়ার উদ্দিন (৪৫), মৃত দলিলুর রহমানের পুত্র ছৈয়দ নুর (৫০), জাফর আলমের ছেলে আলী আহমদ (৪৫), মৃত গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মো: সোহেল (২২), মৃত এজাহার মিয়ার ছেলে শামশুল আলম (৬০), আসহাব মিয়ার ছেলে আমির হোসেন (৪০)।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::