শিরোনাম :
বিভিন্নস্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরলো ২০ প্রাণ মৃত্যু নিশ্চিত করতে পর পর দুটি গুলি করেন ওসি প্রদীপ দীর্ঘদিন পর অনুশীলনটাকে চ্যালেঞ্জিং মনে হচ্ছে মুমিনুলের বৈরুতে নেতাদের ওপর ক্ষোভ বাড়লেও উদ্ধার কাজে এসেছে গতি দক্ষ ও প্রশিক্ষিত কৃষি-গ্রাজুয়েট তৈরি করতে হবে: কৃষিমন্ত্রী লাইসেন্সবিহীন হাসপাতাল-ক্লিনিকের তথ্য চেয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর অবশেষে করোনামুক্ত অভিষেক, এক মাস পর হাসপাতাল ছাড়লেন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের অনুসন্ধানে প্রবাসীদের সহযোগীতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিনহা হত্যা মামলার ৪ আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ, ৩ আসামীকে এখনো রিমান্ডে নেয়নি কেরালার বিমান দুর্ঘটনায় অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেল এক পরিবার
রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন

পেকুয়ায় ৪টি মামলার পলাতক আসামী ‘নবু’ মেম্বার পুলিশের জালে ধরা

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া::

প্রকাশ: July 28, 2020 10:44 am | সম্পাদনা: July 28, 2020 10:44 am

কক্সবাজারের পেকুয়ায় হত্যা,অস্ত্র ও বন মামলাসহ ৪টি মামলার পলাতক আসামি নবী হোসাইন (৫০) প্রকাশ নবু মেম্বার অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়েছে।

মঙ্গলবার (২৮জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা পরিষদ গেইট থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

এদিন গোপন সংবাদে পেকুয়া থানার এএসআই নাছির উদ্দিন ও এএসআই নিউটনের নেতৃত্বে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। নবী হোসাইন টইটং ইউপির কাটা পাহাড় এলাকার মৃত.খুইল্যা মিয়ার ছেলে ও ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সসদ্য।

পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানায়, নবী হোসেন মেম্বারের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র আইন ও ২টি বন মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা রয়েছে। সে দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে আসছিল।পাহাড়ি জনপদে সে এতদিন আত্মগোপনে ছিল।অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়েছে।

জানাগেছে, নবী হোসেন একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী। পাহাড়ি এলাকায় বনভুমি দখল বেদখলে জড়িত রয়েছে। পাহাড়ি ছড়া থেকে বিভিন্ন পয়েন্টে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

সরকার হারাচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব। গত তিন বছর আগে পুলিশ অভিযান চালিয়ে নবী হোসেন মেম্বারের বাড়ি থেকে দুইটি দেশীয় তৈরী লম্বা বন্দুক ও বিপুল পরিমান মদ উদ্ধার করে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::